১৮ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বড়লেখায় চাঞ্চল্যকর নারী আইনজীবী হত্যা, ৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

https://beanibazarnews24.com/wp-content/uploads/2019/11/nari-3-asami.jpg

বড়লেখায় চাঞ্চল্যকর মহিলা আইনজীবী আবিদা সুলতানা হত্যা মামলার কারাগারে থাকা ২ আসামিসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ। শুক্রবার বিকালে এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বড়লেখা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জসীম অভিযোগপত্র দাখিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অভিযুক্তরা হলেন নিহত আইনজীবী আবিদা সুলতানার পারিবারিক মসজিদের ইমাম তানভীর আলম (৩৪)। তার ছোটভাই আফছার আলম (৩০) এবং স্ত্রী হালিমা সাদিয়া (২৮)।

জানা গেছে, গত ২৬ মে বেলা ১১টা থেকে রাত ৮টার মধ্যের যে কোনো সময় বড়লেখার মাধবগুল গ্রামে পৈত্রিক বাসায় নির্মমভাবে খুন হন মৌলভীবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য ও জজকোর্টের আইনজীবী আবিদা সুলতানা। তিনি উপজেলার কাঠাঁলতলী মাধবগুল গ্রামের মৃত আবদুল কাইয়ুমের বড় মেয়ে।

হত্যাকাণ্ডের পরই ওই বাসার অপরাংশের ভাড়াটিয়া ও তাদের পারিবারিক মসজিদের ইমাম তানভীর আলম (৩৪) বাসায় তালা ঝুলিয়ে স্ত্রী ও মাকে শ্বশুরবাড়ি পাঠিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। পরদিন সন্দেহভাজন খুনি হিসেবে শ্রীমঙ্গল থেকে পুলিশ তাকে আটক করে। এর আগে পুলিশ তার স্ত্রী হালিমা সাদিয়া (২৮) ও মা নেহার বেগমকে (৫৫) আটক করেছিল।

আইনজীবী আবিদা সুলতানা খুনের ঘটনায় তার স্বামী মো. শরিফুল ইসলাম বসুমিয়া মসজিদের ইমাম তানভীর আলম, তার ছোটভাই আফছার আলম, স্ত্রী হালিমা সাদিয়া (২৮) ও মা নেহার বেগমকে (৫৫) আসামি করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জসীম জানান, অ্যাডভোকেট আবিদা সুলতানা হত্যা মামলাটির তদন্ত সম্পন্ন করেছেন। বুধবার ৩ আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দিয়েছেন। অভিযুক্ত ৩ আসামির ২ জন কারাগারে এবং অপর আসামি আফছার আলম পলাতক।

A+ A-

সর্বশেষ সংবাদ

ক্যান্সার কেড়ে নিল বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী-মানবতাবাদী তরুণ শাহরিয়ার শুভকে

লবনের দাম বৃদ্ধির খবরটি গুজব-কান না দেয়ার আহবান ।। আইনী ব্যবস্থা নেবে প্রশাসন

সাংবাদিকদের প্রতি কৃতজ্ঞ প্রকাশ করলেন বিয়ানীবাজারের আওয়ামী লীগ নেতারা

সিলেটে ১ কেজি পেঁয়াজ কিনতে লাইনে মেয়র আরিফ!

বিয়ানীবাজার পৌরশহরে অবৈধ বিলবোর্ড ও সাইনবোর্ড অপসারণ অভিযান শুরু

বঙ্গবন্ধু বিপিএল- কে কোন দলে?

ঘোষণাঃ

Translate »