অনেক প্রবাসীই লাল-সবুজের জার্সি গায়ে জড়ানোর স্বপ্ন দেখছেন। অতীতে ট্রায়ালে বাদ পড়েছিলেন কেউ কেউ। ডেনমার্ক প্রবাসী জামাল ভূঁইয়া সব পরীক্ষায় উতরে এখন বাংলাদেশ ফুটবলের পোস্টারবয়।

তাঁর পথ অনুসরণ করে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে জড়িয়েছেন ফিনল্যান্ড প্রবাসী তারিক কাজী। বাংলাদেশের হয়ে খেলার জন্য প্রবাসীদের তালিকাও অনেক লম্বা। তবে অনেকেরই ভিত্তিটা পাকাপোক্ত নয় বলেই তাঁদের প্রতি আগ্রহী নয় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। ইংলিশ লিগে খেলা বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত হামজা দেওয়ান চৌধুরীর প্রতি চোখ ছিল বাফুফের।

কিন্তু বিশ্বের অন্যতম সেরা লিগে খেলা এ ফুটবলারকে পাওয়া অসম্ভবই মনে করেছিল তারা। তবে সম্প্রতি হাজমার এক সাক্ষাৎকারে উঠে আসে তাঁর বাংলাদেশের হয়ে খেলার আগ্রহের কথাটি। বর্তমানে লিস্টার সিটি থেকে ধারে ইংলিশ ক্লাব ওয়াটফোর্ডে খেলছেন হামজা। কাগজে-কলমে লিস্টারের ফুটবলার হওয়ায় আপাতত হামজাকে পেতে ইংলিশ এই ক্লাবটিকে চিঠি দিয়েছে বাফুফে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ, ‘আমরা হামজা চৌধুরীকে পেতে তাঁর ক্লাবের রীতি মেনেই লিস্টারকে চিঠি দিয়েছি। ইংলিশ লিগের নিয়ম অনুযায়ী কোনো ফুটবলারের সঙ্গে কথা বলতে হলে তাঁর ক্লাবের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হয়। সে জন্য যদি আমাদের বিলম্ব হয় সেটাই করতে হবে। কারণ এটাই নিয়ম।’

‌বিয়ানীবাজারের শামীম দম্পতির স্বপ্ন ভাঙছে কুশিয়ারা, আতঙ্কে কাটছে দিবারাত্রি