সিলেট নগরীতে ফিজিওথেরাপি সেন্টার ও হিজামা ক্লিনিকের নামে বাসা ভাড়া নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে চলছে অনৈতিক কর্মকাণ্ড। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সেখানে ঝটিকা অভিযান চালায় পুলিশ। শনিবার (২৭ নভেম্বর) সেই অবৈধ প্রতিষ্ঠান থেকে ৫ নারী-পুরুষকে গ্রেফতার করা হয়। রোববার (২৮ নভেম্বর) তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

বিষয়টি জানিয়েছেন সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলী মাহমুদ।

তিনি রোববার বিকেলে বলেন, নগরীর মীরের ময়দান পয়েন্ট সংলগ্ন পুলিশ লাইনস মসজিদের বিপরীতে অর্ণব ৩৫ নম্বর বাসায় ‘মা ফিজিওথেরাপি অ্যান্ড হিজামা ক্লিনিক’ নামের সাইনবোর্ড টানিয়ে এর আড়ালে নারীদের দিয়ে দেহব্যবসা করাচ্ছিলো একটি চক্র। সম্প্রতি এ খবর পাই এবং শনিবার সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে প্রতিষ্ঠানটি থেকে ২ নারী ও ৩ পুরুষকে গ্রেফতার করে কোতোয়ালি থানাপুলিশ।

ওসি মো. আলী মাহমুদ জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা অনৈতিক কাজের কথা স্বীকার করেছেন। রোববার দুপুরে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হলে আদালত কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এদিকে, এই ৫ জনের নাম প্রকাশে অপারগতা প্রকাশ করেন ওসি আলী মাহমুদ।

বড়লেখায় নির্বাচনী সহিংসতায় পুলিশের ফাঁকা গুলি, আহত অর্ধ শতাধিক