বিভিন্ন জনের ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক করে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নিতেন মো. মামুন মিয়া (২০)। এ কাজে তার সহযোগি হিসেবে ছিলেন আফজাল হোসেন রিমন (২০) ও জাবের আহমদ (২৯)। দীর্ঘদিন ধরেই তারা প্রবাসী, সামাজিকভাবে পরিচিত ব্যক্তিসহ বিভিন্ন জনের ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক করে তাদের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করে নিতেন। এরপর এসব তথ্য ব্যবহার করে টাকায় আদায় করতেন। বিকাশের মাধ্যমে এসব টাকা আদায় করতেন তারা।

এই চক্রের দুই সদস্যকে বৃহস্পতিবার গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। গ্রেপ্তারের পর বৃহস্পতিবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব-৯ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল আবু মুসা মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম এসব তথ্য জানান। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় চৌকিদেখি থেকে সাইবার অপরাধী মামুন মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তিতে সুনামগঞ্জ থেকে তার সহযোগী আফজল হোসেন রিমনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এই চক্রের অপর সদস্য জাবেরকে গ্রেপ্তারে র‍্যাব অভিযান চালাচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন বলে জানিয়েছে র‍্যাব।

র‍্যাব-৯ এর অধিনায়ক জানান, তারা দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণার মাধ্যমে হ্যাকিং করে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য চুরি করে প্রবাসী ও বিত্তবানদের কাছে অর্থ দাবি করতো। র‍্যাবের কাছে এ বিষয়ে বেশ কয়েকটি অভিযোগ এসেছে। বিকাশের মাধ্যমে টাকা উত্তোলনের সূত্র ধরে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক করার পর ওই ব্যক্তির কোনো প্রবাসী আত্মীয় বা বন্ধুবান্ধবের কাছে বিভিন্ন সমস্যার কথা বলে টাকা আদায় করতো তারা। গত দেড় মাসে এই চক্র এভাবে প্রতারণার মাধ্যমে প্রায় দুই লাখ টাকা আদায় করে বলেও জানায় র‍্যাব।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-