সিলেটে করোনাভাইরাসের আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও দুজনের মৃত্যু হয়েছে। মারা যাওয়া ব্যক্তিরা সিলেট ও মৌলভীবাজার জেলার বাসিন্দা।

এ নিয়ে সিলেট বিভাগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪২৮ জন। এরমধ্যে সিলেট জেলার ৩৪৯ জন, সুনামগঞ্জে ৩০ জন, হবিগঞ্জে ১৮ জন এবং মৌলভীবাজারের ৩১ জন।

একই সময়ে সিলেট বিভাগে আরও ৯২ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। নতুন শনাক্তদের মধ্যে সিলেট জেলার ৫৯ জন, সুনামগঞ্জে ২, হবিগঞ্জে ২, মৌলভীবাজারের ১৯ জন এবং সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি ১০ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

সব মিলিয়ে সিলেট বিভাগে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৩ হাজার ৩৯৫ জন। এরমধ্যে সিলেট জেলায় ১৫ হাজার ৩৯৬ জন, সুনামগঞ্জে ২ হাজার ৮৫১, হবিগঞ্জে ২ হাজার ৫৩৯ এবং মৌলভীবাজারে ২ হাজার ৬০৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

আর গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে থেকে ৬৭ জন সুস্থ হয়েছে। নতুন সুস্থদের মধ্যে সিলেট জেলায় ৬০ জন, সুনামগঞ্জের ১, এবং মৌলভীবাজারের ৬ জন। সব মিলিয়ে সিলেট বিভাগে সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২১ হাজার ৯২৪ জন। এরমধ্যে সিলেট জেলার ১৪ হাজার ৭৩৯ জন, সুনামগঞ্জে ২ হাজার ৭৫১ জন, হবিগঞ্জে ২ হাজার ৮১ জন এবং মৌলভীবাজারের ২ হাজার ৩৫৩ জন সুস্থ হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) সিলেট বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য)’র কার্যালয়ের কোভিড-১৯ কোয়ারেন্টিন ও আইসোলেশনের দৈনিক প্রতিবেদন এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ১০ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। সব মিলিয়ে চিকিৎসাধীন আছেন ২৩৫ জন। এরমধ্যে সিলেটে ২১০, সুনামগঞ্জে ১, হবিগঞ্জে ৫ এবং মৌলভীবাজারে ১৯ জন।

অন্যদিকে গত ১০ মার্চ থেকে বৃহস্পতিবার (১০ জুন) সকাল ৮টা পর্যন্ত সিলেট বিভাগে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে ৩০ হাজার ৩৯৬ জনকে। এর মধ্যে কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে ৩০ হাজার ১০ জনকে। বর্তমানে সিলেট বিভাগে হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৩৮৬ জন।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

ফের বিয়ানীবাজার-চন্দরপুর সড়কে ধস!