সিলেট বিভাগের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ইয়াবা, ফেন্সিডিলসহ ৫ মাদক করবারিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৯। রোববার (২০ ডিসেম্বর) পৃথক অভিযানে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থেকে ইয়াবাসহ ১ জন, মৌলভীবাজারের সদর থেকে ফেন্সিডিলসহ ৩ জন, সিলেট নগরীর কোতয়ালী থানা এলাকা থেকে ফেন্সিডিলসহ ১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। র‌্যাব বাদী হয়ে মাদক আইনে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। র‌্যাব-৯ এর গণমাধ্যম বিভাগ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

র‌্যাব-৯ সূত্রে জানা গেছে, রোববার দুপুরে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯ সিপিসি-৩ (সুনামগঞ্জ ক্যাম্প) এর একটি আভিযানিক দল সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুরের বিন্নাকুলি গোদারা ঘাটস্থ জাদুকাটা নদীর পাড়ে অভিযান চালায়। এসময় ৯৫ পিস ইয়াবা, ১টি মোবাইল ও ১টি মোটরসাইকেলসহ মো. বুরহান উদ্দিনকে (৩০) গ্রেপ্তার করা হয়। বুরহান তাহিরপুর উপজেলার বারহাল গ্রামের আইন উদ্দিনের ছেলে।

এদিন রাত পৌনে ১১টার দিকে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯ সিপিসি-২ (শ্রীমঙ্গল ক্যাম্প) এর একটি দল মৌলভীবাজার জেলা সদরের গিয়াসনগর ইউনিয়নের আকবরপুর সাকিনস্থ আঞ্চলিক কৃষি গবেষনা কেন্দ্রের সামনে অভিযান চালায়। এসময় ৪২ বোতল ফেন্সিডিলসহ দরগা মহল্লা (শাহ মোস্তাফা রোড) এলাকার মৃত মো. আলিম উল্লাহর ছেলে মো. মাহমুদ আহমদ (৩৫), আগনসী এলাকার মৃত রফিজ মিয়ার ছেলে ইয়াউর মিয়া (২৭) ও দরগা মহল্লা (শাহ মোস্তাফা রোড) এলাকার মৃত বাতির মিয়ার ছেলে জুবেদ মিয়াকে (২৪) আটক করা হয়।

অপরদিকে রাত সোয়া ৯টার দিকে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯ সদর কোম্পানি (সিলেট কোম্পানি) এর একটি দল সিলেট নগরীর লালাদিঘীর পশ্চিম পাড় এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৮ বোতল ফেনসিডিলসহ লিয়াকত ইসলামকে (৩৭) গ্রেপ্তার করা হয়। লিয়াকত লালাদিঘীর পাড় এলাকার মৃত আলীম উদ্দিনের ছেলে।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

প্রশিক্ষণ নিয়ে আত্মনির্ভরশীল হচ্ছেন বিয়ানীবাজারের মহিলারা