মার্সেলো বিয়েলসার অধীনে দুর্দান্ত ফুটবল খেলার প্রত্যয় নিয়েই প্রিমিয়ার লিগে উঠে আসে লিডস ইউনাইটেড। আর ১৬ বছর পর ফেরার ম্যাচটাই স্মরণীয় করে ফেলেছিল প্রায় লিডস। প্রিমিয়ার লিগের ২০২০/২১ মৌসুমের উদ্বোধনী দিনে ২০১৯/২০ মৌসুমের প্রিমিয়ার লিগের চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল অ্যানফিল্ডে আতিথ্য দেয় লিডসকে। আর চ্যাম্পিয়নদের ঘরের মাঠেই সাত গোলের রোমাঞ্চ উপহার দেয় দু’দল। তবে শেষ পর্যন্ত মোহাম্মদ সালাহর হ্যাটট্রিকে ৪-৩ গোলের ব্যবধানে লিডসকে হারিয়ে নতুন মৌসুমের সুচনা করে চ্যাম্পিয়নও লিভারপুল।

প্রিমিয়ার লিগের উদ্বোধনী দিনে চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল আতিথ্য দেয় ১৬ বছর পর প্রিমিয়ার লিগে খেলতে আসা লিডসকে। এদিন মাঠের খেলার মতোই উত্তেজনার ছিল ডাগআউটে দুই মহারথী কোচের কৌশলের লড়াইতেও। গুরুদের গুরু নামে পরিচিত মার্সেলো বিয়েলসার অধীনে দুর্দান্ত ফুটবল উপহার দেওয়ার প্রত্যয় লিডস ইউনাইটেডের। আর সেই লক্ষ্যে যে তারা অটুট তা প্রথম ম্যাচেই জানান দিল। এদিন লিভারপুল জয়ী হলেও মাঠের খেলায় ছেড়ে কথা বলেনি লিডসও।

অ্যানফিল্ডে যেখানে দূর্গ গড়ে তুলেছিল অলরেডরা, সেই দূর্গ ভেদ করে একের পর এক যেন কামানের গোলা ছুঁড়তে শুরু করে লিডস। তবে ম্যাচের প্রথম মুহূর্তেই এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। ম্যাচের তৃতীয় মিনিটে মোহাম্মদ সালাহর নেওয়া শট লিডসের ডি বক্সের ভেতরে ডিফেন্ডার রবিন কুচের হাতে লাগে। আর রেফারি সরাসরি বাজিয়ে দেন পেনাল্টির বাঁশি। স্পট কিক থেকে মৌসুমে নিজের প্রথম গোল করে দলকে ১-০’তে এগিয়ে নেন সালাহ।

আর তখনই তেঁতে ওঠে লিডস। গোল হজমের পরেই নিজেদের গুছিয়ে নিয়ে খেলা শুরু করে বিয়েলসার শিষ্যরা। ১২তম মিনিটে কেলভিন ফিলিপসের লং বল দুর্দান্তভাবে রিসিভ করে আলেক্সন্ডার আর্নল্ডকে পাশ কাটিয়ে বল নিয়ে ডি বক্সে ঢুকে পড়েন লিডস উইঙ্গার জ্যাক হ্যারিসন। এরপর জো গোমেজে গতি দিয়ে পরাস্থ করে দুর্দান্ত এক শটে বল জালে জড়ান। আর ম্যাচের ১২ মিনিটে দলকে সমতায় ফেরান।

তবে রোমাঞ্চের শুরু তো এখানেই, এদিন যেন মুড়িমুড়কির মতো গোলের দেখা মিলেছে। ম্যাচের ২০ মিনিটের মাথায় অ্যান্ড্রিউ রবার্টসনের নেওয়া কর্নার কিক থেকে হেড দিয়ে দলকে দ্বিতীয়বারের মতো এগিয়ে নেন লিভারপুলের ডাচ ডিফেন্ডার ভার্জিল ভ্যান ডাইক। এবার পালা হোয়াইটসদের। ম্যাচের ৩০ মিনিটে অলরেডদের দ্বিতীয় গোলদাতা ভ্যান ডাইকের ভুল থেকেই সমতায় ফেরে লিডস। ভ্যান ডাইকের অলসতার কারণে বল বিপদমুক্ত করতে গিয়ে ভুল করে পাস দিয়ে দেন লিডসের প্যাট্রিক বামফোর্ডকে। এরপর অ্যালিসনের মাথার ওপর দিয়ে বল জালে পাঠিয়ে দেন বামফোর্ড। এবার ২-২ গোলে সমতায় ফেরে লিডস।

এ যেন একবার তোমার পালা তো একবার আমার পালা নীতিতে এগিয়ে যাচ্ছিল দুই দল। ম্যাচের ৩০ মিনিটে লিডস সমতায় ফেরার ঠিক তিন মিনিট পর ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোল করে দলকে তৃতীয়বারের মতো এগিয়ে নেন মোহাম্মদ সালাহ। ম্যাচের ৩২তম মিনিটে ফ্রিকিক থেকে বল ডি বক্সে পাঠিয়ে দেন রবার্টসন, তবে ডি বক্স থেকে বল ক্লিয়ার করেন লিডস ডিফেন্ডার প্যাসকাল স্টার্জিক। কিন্তু ক্লিয়ার করে বল তিনি পাঠিয়ে দেন মোহাম্মদ সালাহর কাছে, সেখান থেকে প্রথম টাচে বল নিজের আয়ত্তে আনেন সালাহ এরপর দুর্দান্ত এক শটে বল জালে জড়িয়ে ৩-২ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে নেন দলকে।

প্রথমার্ধেই পাঁচ গোলের রোমাঞ্চের পর বিরতি। তবে সেখানেই ম্যাচের শেষ নয়। নাটকের তখনও অনেক বাকি। তখনও আরও দুটি গোল হওয়া বাকি। তখনও মোহাম্মদ সালাহর নতুন মৌসুমে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করা বাকি। আর লিডসের লিভারপুলের অন্তরে কাঁপন ধরানটাও বাকি। ম্যাচের ৬৬ মিনিটে লিডস উইঙ্গার হেল্ডার কস্টা সতীর্থ মিডফিল্ডার মাতেউসজ ক্লিচকে লক্ষ্য করে লিভারপুলের ডি বক্সে বল পাস করেন। তার আগে কস্টার পায়ে বল দেখেই ডি বক্স বরাবর দৌড় দেন ক্লিচ। এরপর ডি বক্সের ভেতরে বল পেয়ে প্রথমে ডান পা দিয়ে বল নিয়ন্ত্রণে আনেন এবং এরপর জোরালো শটে অ্যালিসনের নাগালের বাইরে দিয়ে বল জালে জড়ান। আর লিডসকে তৃতীয়বারের মতো সমতায় ফেরান।

তবে কি প্রিমিয়ার লিগের চ্যাম্পিয়নদের মৌসুম শুরু হবে ড্র দিয়েই? বৃথা যাবে মোহাম্মদ সালাহর জোড়া গোল? অপেক্ষাকৃত দুর্বল খেলোয়াড় নিয়েও লিভারপুলকে তাদেরই ঘরের মাঠে আটকে দেবে মার্সেলো বিয়েলসা? না এমন কিছুই হয়নি। লিভারপুলের ত্রাতা সেই মোহাম্মদ সালাহই। ম্যাচের ৮৭ মিনিটে অলরেড মিডফিল্ডার ফ্যাবিনহোকে ফাউল করেন লিডসের আক্রমণ ভাগের খেলোয়ার রদ্রিগো। আর সঙ্গে সঙ্গেই রেফারি বাঁশি দেন পেনাল্টির। প্রথম গোলের মতো এবারেও ঠান্ডা মাথায় বল জালে জড়ান সালাহ। চতুর্থবারের মতো লিভারপুলকে এগিয়ে নেন। আর সেই সঙ্গে পূর্ণ করেন নিজের হ্যাটট্রিকও।

শেষ পর্যন্ত সাত গোলের রোমাঞ্চ শেষ হয় লিভারপুলের জয়ের মধ্য দিয়ে। আর প্রিমিয়ার লিগের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরাও নতুন মৌসুমের যাত্রা শুরু করে ৪-৩ গোলের রুদ্ধশ্বাস জয় দিয়ে।

এছাড়া দিনের অপর দুই ম্যাচে ফুলহামকে ৩-০ গোলের ব্যবধানে হারায় আর্সেনাল আর সাউদাম্পটনকে ১-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে প্রিমিয়ার লিগের সুচনা করে ক্রিস্টাল প্যালেস।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বিয়ানীবাজার থেকে অপহরণ করে পালানোর সময় ৫ অপহরণকারি আটক, গাড়ি জব্দ