প্রেমসংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে বিয়ানীবাজারে ছাত্রলীগ বিবধমান দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা হয়েছে। শুক্রবার (০৪ সেপ্টেম্বর) রাতে ছাত্রলীগ কর্মী আবু বক্কর বাদী হয়ে বিয়ানীবাজার থানায়  মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় ছাত্রলীগ নেতা সালাহ উদ্দিন (১৯), আশরাফুল হক সাকেল (২৫) ও উজ্জ্বল আহমদ (২০) সহ ৯জনের নাম উল্লেখ করে আসামি করা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার (০৩ সেপ্টেম্বর) রাতে পৌরশহরে ছাত্রলীগের রিভারবেল্ট ও স্বাধীন গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষ কলেজ রোড ও প্রধান সড়কে ছড়িয়ে পড়লে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা, ধাওয়া-পাল্টা-ধাওয়া, ইট-পাটকেল নিক্ষেপ এবং সিএনজি অটোরিক্সা ও মোটর সাইকেল ভাংচুর করা হয়।

সংঘর্ষে চার ছাত্রলীগ কর্মীসহ এক পথচারি আহত হন। আহতদের মধ্যে মোস্তফা উদ্দিন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার হাতের তিনটি আঙ্গুল ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। চিকিৎসকরা ৭২ ঘন্টার পর আঙ্গুল টিকিয়ে রাখা যাবে কি না জানাতে পারবেন। অন্য আহতদের মধ্যে মাহফুজ আহমদ, পথচারি জয়নাল উদ্দিন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। অন্য দুই ছাত্রলীগ কর্মীর পরিচয় জানা যায়নি।

মামলা দায়ের হওয়ার বিষয়টি বিয়ানীবাজার নিউজ২৪কে নিশ্চিত করেন বিয়ানীবাজার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাহিদুল হক। তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে পূর্ব বিরোধের জেরে ছাত্রলীগের দুটি গ্রুপের সংঘর্ষ ঘটনায় এ মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতার করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। গাড়ি ভাংচুরের বিষয়ে তিনি বলেন, ক্ষতিগ্রস্থদের মধ্যে কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। তবে কেউ অভিযোগ দায়ের করলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এবিটিভির প্রতিবেদন-

বিয়ানীবাজারে আরো ১৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ৩৪৫