বিয়ানীবাজার উপজেলার তিলপাড়া ইউনিয়নের দাসউরা গ্রামের সন্তান, সিলেট নগরীর বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক আবদুল মুক্তাদির এর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন জাতীয় সংসদের সাবেক হুইপ ও সাবেক সংসদ সদস্য জাতীয় পার্টির মাননীয় চেয়ারম্যানের আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা সেলিম উদ্দিন।

সোমবার সকালে তিনি সিলেটের আল হারামাইন হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন (ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই পুত্র, কন্যা, পুত্রবধূ ও নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ওইদিন দুপুর ও রাতে বিয়ানীবাজার ও সিলেটে দুই দফায় জানাজার নামাজ শেষে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

এক শোক বার্তায় সাবেক হুইপ সেলিম উদ্দিন বলেন, মরহুম আব্দুল মুক্তাদির সমাজের উন্নয়ন কার্যক্রমে নানাভাবে সংযুক্ত ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে বিয়ানীবাজারবাসী একজন সমাজসেবীকে হারালো, যে ক্ষতি পূরণ হবার নয়। সাবেক হুইপ সেলিম উদ্দিন মরহুমের রোহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

মাছ চাষে স্বাবলম্বী বিয়ানীবাজারের আলকাছ আলী