উদ্বোধনী ম্যাচে হট ফেবারিট ঢাকা ডায়নামাইটসকে উড়িয়ে দিয়ে শুরু। এরপর একে একে ধরাশয়ী কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও রাজশাহী কিংস। শুরুর তিন ম্যাচে তিন জয়। রীতিমতো আকাশে উড়ছিল সিলেট সিক্সার্স। এরপর যেন তাদের পতন শুরু! আকাশ থেকে মাটিতে নামা সিক্সার্স যেন এখন মাটিতেই মিশে যাচ্ছে!

প্রথম তিন ম্যাচে উড়ন্ত সূচনা করা সিলেট সিক্সার্স পরের চার ম্যাচের তিনটিতেই হেরেছে বাজেভাবে। একটি ম্যাচ বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হওয়ায় ইজ্জত রক্ষা। শুরুতে চার ম্যাচ শেষে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা সিলেট সিক্সার্স এখন চারে। কিন্তু বিপিএলের নবাগত এই ফ্র্যাঞ্চাইজির যে পারফরম্যান্স, তাতে চার নম্বর স্থান থেকেও তাদের পিছিয়ে যাওয়া অবাক করার মতো কিছু হবে না!

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ক্রিকেট এখন চট্টগ্রামে। ৪ নভেম্বর শুরু হওয়া বিপিএল সিলেট পর্ব শেষে যায় ঢাকায়। আজ শুক্রবার থেকে শুরু হবে চট্টগ্রাম পর্বের ম্যাচ। এরপর আবারও ঢাকায় ফিরবে বিপিএল।

নতুন ভেন্যুতে নতুন করেই শুরু করতে চায় সিলেট সিক্সার্স। গেল কয়েক ম্যাচের হতাশা ঝেড়ে ফেলে গা ঝাড়া দিয়ে ওঠতে উদগ্রিব সিলেটি মালিকানায় থাকা ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।

সিলেট সিক্সার্সের কোচ জাহিদ এহসান বলছেন, ‘আমরা টুর্নামেন্টে দারুণ শুরুর পরও তা ধরে রাখতে পারি নি। কয়েকটি ম্যাচে জয়ের কাছে গিয়েও হেরেছি। কিন্তু চট্টগ্রামে আমরা নতুন করে শুরু করতে চাই।’

এই নতুন শুরুর পথে গেল ম্যাচগুলোর ভুল শুধরে নেয়ার কাজ করা হয়েছে বলে জানালেন সিক্সার্স কোচ এহসান, ‘আমরা ভুল শোধরানোর কাজ করেছি। চট্টগ্রামে সেই ভুলগুলো হবে না বলে আশাবাদী। ক্লোজ ম্যাচে কিভাবে জয় ছিনিয়ে আনতে হয়, সে টেকনিক নিয়েও কাজ করেছি আমরা।’

জয়ের ধারায় ফিরতে মরিয়া সিলেট সিক্সার্স গত মঙ্গলবার চট্টগ্রামে পৌঁছায়। বুধবার থেকে এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে শুরু হয় তাদের অনুশীলন। বৃহস্পতিবারও ঘামঝরানো অনুশীলনে সময় পার করেছেন নাসির, সাব্বিররা। আজ শুক্রবার চট্টগ্রামের ঘরের দল চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে সিলেট সিক্সার্সের লড়াই। সেই লড়াই সহজ হবে না মোটেও। পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে থাকা ভাইকিংস মরণকামড় দিতে রণপ্রস্তুতি নিয়েছে। নিজেদের ঘরের মাঠে দর্শক সমর্থনও তাদের বড় সুবিধা।

তবে এসব নিয়ে ভাবছে না সিলেট সিক্সার্স। তাদের ভাবনায় শুধুই একটি শব্দ-‘জয়’। ফ্র্যাঞ্চাইজিটির কোচ জাহিদ এহসান বলছেন, ‘আমরা প্রত্যেক দলকেই সমীহ করি। কিন্তু মাঠে নামি জয়ের জন্যই।’

সামনের ম্যাচগুলোতে জয় ছিনিয়ে বিপিএলের শেষ চারে জায়গা করে নেওয়ার লক্ষ্যই এখন সিলেট সিক্সার্সের।