জাতীয় ক্রিকেট লিগে ঢাকা মেট্রোকে বড় টার্গেটই দিতে যাচ্ছে সিলেট বিভাগীয় ক্রিকেট দল। প্রথম ইনিংসে তান্নার শতকের পর দ্বিতীয় ইনিংসে দুর্দান্ত এক অর্ধশতক হাঁকিয়েছেন শেনাজ আহমদ। প্রথম ইনিংসে ৬০ রানের লিড পাওয়া সিলেট তৃতীয় দিন শেষে লিড নিয়েছে ২৩৬ রানের। আজ শেষ দিন সকালে আবারো ব্যাট করতে নামবেন সিলেটের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান শাহনুর ও রাহী। ২ উইকেট নিয়ে কাল সকালে ব্যাটিং করে সিলেট বড় টার্গেট দিতে পারে ঢাকা মেট্রোকে।

প্রথম ইনিংসে সিলেটের ৩১৯ রানের জবাবে ঢাকা মেট্রো অলআউট হওয়ার আগে ২৫৯ রান সংগ্রহ করে। আজ রোববার তৃতীয় দিন শেষে সিলেট নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৮ উইকেটে সংগ্রহ করেছে ১৭৬ রান।

প্রথম ইনিংসে সিলেটের হয়ে সেঞ্চুরি হাঁকানো তান্না করেন ১৩২ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে সিলেটের হয়ে শেনাজ ৬৬ রানের এক ঝলমলে ইনিংস খেলেন। ১০৭ বলে সাতটি চারে নিজের অর্ধশতক পূর্ণ করেন শেনাজ। ১৫২ বলে ৮ চারে ৬৬ রান করে নিহাদের শিকারে তিনি সাজঘরে ফেরত যান। এছাড়াও সিলেটের হয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে অলক কাপালী ৩২ রান করেছেন। রাজিন সালেহ’র ব্যাট থেকে এসেছে ২০ রান। ওপেনার তান্না করেছেন ১৬ রান। ২৩ রান করে শাহনুর রহমান ও ১১ রান করেন রাহী অপরাজিত আছেন। সকালে আবারো ব্যাটিংয়ে নেমেছেন এদু’জন।

ঢাকা মেট্রার হয়ে নিহাদ উজ জামান ৪টি ও ইলিয়াস সানি ৩টি উইকেট নিয়েছেন।
প্রথম ইনিংসে ঢাকা মেট্রো ৭৭.৪ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে ২৫৯ রান করেন। মেট্রোর হয়ে মার্শাল আইয়ুব করেছেন ৯৮ রান। মাত্র ২ রানের জন্য তিনি সেঞ্চুরি ‘বঞ্চিত’ হয়েছে। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ইনিংস খেলতে মার্শাল ১৯৪ বল মোকাবেলা করেন। বাউন্ডারী হাঁকান দশটি। সিলেটের কাটা হয়ে দাঁড়ানো এই ব্যাটসম্যানকেও ফিরিয়েছেন এনামুল হক জুনিয়র। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪০ রান করেছেন আশরাফুল। ৩১ রান করেছেন শামসুর রহমান।

সিলেটের হয়ে এনামুল হক জুনিয়র ৫টি, শাহনুর ২টি, জাবেদ, খালেদ ও রাহী ১টি করে উইকেট লাভ করেন।