লরিয়াস বর্ষসেরা পুরুষ ক্রীড়াবিদের অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন লিওনেল মেসি। বর্ষসেরা দলের পুরস্কার জিতেছে বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনা।

ফ্রান্সের প্যারিসে সোমবার (৮ মে) পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। এ নিয়ে বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো পুরস্কারটি জিতলেন এ সুপারস্টার।

২০২০ সালে মেসি পুরুষ বিভাগে যুগ্মভাবে সেরা হয়েছিলেন লুইস হ্যামিল্টনের সঙ্গে। এবার জিতে আরেকটি অনন্য অর্জন ধরা দিলো আর্জেন্টাইন মহাতারকার হাতে।

৮ মে সৌদি সফরের জটিলতা কাটিয়ে ক্লাবের জার্সি গায়ে অনুশীলনে ফিরেছেন মেসি। আর সেদিন রাতেই ফ্রান্সের প্যারিসে আয়োজন করা হয়েছিল জমকালো এই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। যেখানে মেসি এসেছিলেন সস্ত্রীক।

পুরস্কার হাতে নিয়ে আবেগ আপ্লুত মেসি বলেন, এটা বিশেষ এক সম্মান। বিশেষ করে এই বছর লরিয়াস ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ড প্যারিসে হওয়ায়। যারা এখানে আসার পর আমাকে আর আমার পরিবারকে সাদরে গ্রহণ করেছে। আমি সব সতীর্থকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। শুধু জাতীয় দলের নয়, পিএসজির সতীর্থদেরও। এর কিছুই আমি একা অর্জন করতে পারতাম না। এদের সঙ্গে সব কিছু ভাগ করে নিতে পেরে আমি কৃতজ্ঞ।

এদিন আর্জেন্টাইন অধিনায়কের ঝুলি সমৃদ্ধ করেছে আরও একটি অর্জন। ‘ওয়ার্ল্ড টিম অব দ্য ইয়ার’ এর তালিকায় মনোনয়ন পেয়েছিল ছয়টি দল। বাকি সবাইকে পেছনে ফেলে সেরার পুরস্কার জিতেছে কাতারে বিশ্বকাপজয়ী লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরা। বিশ্বকাপজয়ী দলের হয়েও পুরস্কার গ্রহণ করেন মেসি নিজেই।

১৯৯৯ সালে ‘লরিয়াস স্পোর্ট ফর গুড’ নামে একটি ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেছিল জার্মান অটোমোবাইল প্রতিষ্ঠান ডেইলমার ও সুইস বিলাসবহুল দ্রব্যের হোল্ডিং প্রতিষ্ঠান। ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে খেলাধুলায় ব্যক্তিগত ও দলীয় অবদানের ভিত্তিতে ২০০০ সাল থেকে একটি পুরস্কার চালু করা হয়, যা লরিয়াস ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ডস নামে পরিচিত।