বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বসবাসকারি সিলেটের রাজনৈতিক, সামাজিক, অর্থনৈতিক ও পেশাগত সাফল্যকে উদযাপন করতে লন্ডনে বিশ্ব ‘সিলেট সম্মেলন’ অথবা ‘আন্তর্জাতিক সিলেট উৎসব’ আয়োজনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। নবগঠিত জালালাবাদ এসোসিয়েশন ইউকে’র দায়িত্বশীলরা এ উদ্যোগ নিয়েছেন। একই সাথে জালালাবাদ এসোসিয়েশন ইউকে’র এ উদ্যোগকে সফল করতে প্রবাসীদের সর্বাত্মক সহযোগিতার প্রত্যাশা করছেন সংগঠনের দায়িত্বপ্রাপ্তরা।

গত ২৫ জুলাই পূর্ব লন্ডনের কমার্শিয়াল রোডস্থ হলিডে ইন্ হোটেলে অনুষ্ঠিত এক সভায় যুক্তরাজ্য প্রবাসী সিলেট অঞ্চলের মানুষের মধ্যে পারস্পারিক সম্পর্ককে আরো সুদৃঢ়করণ এবং ঐতিহ্য, সংষ্কৃতি, কল্যাণ ও সংহতির প্রয়োজন পূরণের লক্ষ্যে জালালাবাদ এসোসিয়েশন ইউকে গঠন করা হয়

যুক্তরাজ্য প্রবাসী বাংলাদেশীদের ঐতিহ্যবাহি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ সেন্টারের ভাইস প্রেসিডেন্ট, বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা ও সংগঠক বিয়ানীবাজারের কৃতি সন্তান মুহিবুর রহমান মুহিবকে আহবায়ক করে জালালাবাদ এসোসিয়েশন ইউকে’র একটি আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন, ব্রেন্ট কাউন্সিলের সদস্য সাবেক মেয়র কাউন্সিলর পারবেজ আহমদ, ম্যানচেস্টারের বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা মঈনুল আমিন বাবুল, লন্ডন-বাংলা প্রেস ক্লাবের প্রেসিডেন্ট সৈয়দ নাহাস পাশা, সাবেক জিপি ডাক্তার আলাউদ্দিন আহমদ, ব্যারিস্টার মাসুদ চৌধুরী, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিষ্ট নজরুল ইসলাম বাসন, সুইনডনের বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা এমানুল হক চৌধুরী, কেন্টের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও কমিউনিটি নেতা খালেদ চৌধুরী, মাহবুবুর রহমান, জাহাঙ্গীর খান, মামুন রশিদ ও দিলওয়ার হোসেন।

নব গঠিত সংগঠনের আহবায়ক মুহিবুর রহমান মুহিবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় জানানো হয় যে, জালালাবাদ এসোসিয়েশন ঢাকা’র সহযোগী সংগঠন হিসেবে এটিকে সিলেটবাসীর মর্যাদার প্রতীক হিসেবে গদে তুলতে হবে। সভায় সংগঠনের উদ্যোক্তারা দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, গোটা যুক্তরাজ্যের প্রতিটি জনপদে ও সম্ভাবনাকে কাজে লাগানোর প্লাটফরম হিসেবে কাজ করবে। সভায় বিভিন্ন সাংগঠনিক বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।