মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়ার ভাটেরা এলাকার রুশনা জেলার মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড হয়ে এবারের দাখিল পরীক্ষায় একমাত্র জিপিএ-৫প্রাপ্ত ছাত্রী। দাখিল পরীক্ষার জেলার ১ হাজার ৯৩৪ জন উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর মধ্যে একমাত্র জিপিএ-৫ পেয়েছে সে।

উপজেলার ভাটেরা ইউনিয়নের মাইজগাঁও গ্রামের ফিরোজ মিয়ার মেয়ে রুশনা ভাটেরা সাইফুল তাহমিনা মদিনাতুল উলুম দাখিল মাদ্রাসা থেকে সাধারণ বিভাগে এ ফলাফল অর্জন করেছে। জেলার মধ্যে একমাত্র জিপিএ-৫ পাওয়ায় নিজ মাদ্রাসাসহ এলাকাজুড়ে আনন্দ বইছে।

অদম্য মেধাবী রুশনা মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে। পারিবারিক অভাব-অনটনের মধ্যেও সে দাখিল পরীক্ষায় অংশ নিয়ে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছে। লেখাপড়ার জন্য পর্যাপ্ত বই ছিলো না রুশনার। এতোসব প্রতিকূলতার মধ্যেও সে তার লেখাপড়া চালিয়ে যায়। স্বপ্ন পূরণে রুশনা ছিলো দূঢ়প্রত্যয়ী।

মেধাবী রুশনা পিএসসি ও জেডেসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ লাভ করে। ভবিষ্যতে ব্যাংকার হওয়ার স্বপ্ন  দেখছে সে। ৫ ভাই ও ৩ বোনের মধ্যে রুশণা পঞ্চম। রুশনার বড়োভাই আল-আমিন জানান, রুশনার ফলাফলে আমরাসহ ও আত্মীয়-স্বজন সবাই আনন্দিত। সে যেনো তার লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে-এজন্য সকলের দোয়া চাই।