চিকিৎসক ও মানবসেবক হিসেবে বিশেষ অবদান রাখায় এবার ‘মানবাধিকার শান্তি পদক- ২০১৭’ পেয়েছেন সিলেটের নর্থইস্ট মেডিকেল কলেজের বিশিষ্ট চিকিৎসক ও মানবসেবক ডা. আল-মাহির ফেরদৌস মাহি। তার বাড়ি বিয়ানীবাজার পৌরশহরের দাসগ্রামে হলেও নানা বাড়ি মাথিউরা পূর্বপাড় এলাকায় তার বেড়ে ওঠা। তিনি মাথিউরা দ্বি-পাক্ষিক উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি উত্তীর্ণ হন।

ইউনাইটেড মুভমেন্ট হিউম্যান রাইটস নামের মানবাধিকার সংগঠন প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে দেশের মানবাধিকার রক্ষা ও প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে ভূমিকা রেখে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় গত ১০ মে “মহান মে দিবস উপলক্ষে- শ্রমিকের অধিকার রক্ষায় ও মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় আমাদের করণীয়” শীর্ষক আলোচনা সভা ও গুণিজন সংবর্ধণার আয়োজন করা হয়।

বুধবার আখতার ইমাম অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে তাঁর হাতে এ পদক তুলে দেন বিচারপতি মো. জয়নুল আবেদিন।

ডা. মাহি বলেন- চিকিৎসক কিংবা মানবসেবক হিসেবে কতোটুকু দায়িত্ব পালন করতে পেরেছে জানি না, তবে সমাজের অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর অদম্য ইচ্ছা নিয়ে বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। এ পদক আমার কার্যক্রমে আরো গতি সঞ্চার করবে বলে আমার বিশ্বাস।

ডা. আল-মাহির ফেরদৌস মাহি কেন্দ্র মাথিউরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা ফৌজিয়া সুলতানা লোদী ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ডা. এম এ কুদ্দুস এর একমাত্র সন্তান। তার গ্রামের বাড়ি বিয়ানীবাজার উপজেলার দাসগ্রামে। তিনি ২০০৯ সালে এমবিবিএস সম্পন্ন করে চাকরিতে যোগদান করেন। বর্তমানে নর্থইস্ট মেডিকেল কলেজে অর্থোপেডিক্স বিভাগে আবাসিক সার্জন হিসেবে কর্মরত।

চিকিৎসক হিসেবে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি ডা. মাহি বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজে নিয়মিত অংশগ্রহণ করেন। বিভিন্ন প্রত্যন্ত অঞ্চলে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প, ঔষধ সরবরাহসহ বিভিন্ন সেবা দিয়ে থাকেন।