সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা ছাত্রলীগ কর্মী আব্দুল বাছিত (২৫) হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি ফারুক আহমদ কে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা এলাকা থেকে গ্রেফতার করে বিশ্বনাথ থানা পুলিশ। অভিযানে নেতৃত্ব দেন বিশ্বনাথ থানার তদন্ত অফিসার জাহিদুল ইসলাম ও এসআই রুমেন। বুধাবার তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে বিশ্বনাথ উপজেলার অলংকারী ইউনিয়নের টেংরা গ্রামে পূর্ব বিরোধের জের ধরে ছুরিকাঘাতে ছাত্রলীগ কর্মী আব্দুল বাছিত নিহত হন। নিহত ছাত্রলীগ কর্মী আব্দুল বাছিত টেংরা গ্রামের মৃত আফতাব মিয়ার ছেলে। তিনি বিশ্বনাথ সরকারি কলেজের ছাত্রলীগের একজন কর্মী। তাদের বাড়ির পাশে একটি কাঁচা রাস্তা রয়েছে। রাস্তাটা নিয়ে দীর্ঘদিনের বিরোধ চলে আসছে। কিন্তু এই রাস্তায় গাড়ি চলাচল স্থানীয়ভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। পরে একদিন হঠাৎ করে গত শুক্রবার দিবাগত রাতে সুমন নামে একজন পিকআপে করে লাকড়ি নিয়ে ওই রাস্তা দিয়ে আসে এসময় বাছিত তাকে নিষেধ করে গাড়ি নিয়ে না আসার জন্য।
এনিয়ে দুজনের মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হয়। এক পর্যায়ে সুমন বাছিতকে ছুরিকাঘাত করে সে পালিয়ে যায়।পরে আহত অবস্থায় বাছিতকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়।