বড়লেখায় স্ত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে ছোট ভাইয়ের দায়ের কুপে বড়ভাই খলিল উদ্দিন (৫৫) খুন হয়েছেন। সোমবার দিবাগত রাত দুইটায় উপজেলার দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউপির পূর্ব ঘোলসা গ্রামে এই ঘটনাটি ঘটেছে। খলিল উদ্দিন ওই গ্রামের মৃত সিকন্দর আলীর ছেলে।

হত্যার ৪ ঘন্টার মধ্যে মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে পুলিশ হত্যাকারী ছোটভাই আব্দুল খালিককে (৫৩) গ্রেফতার করেছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এদিকে বিকেলে পুলিশ গ্রেফতার আসামী আব্দুল খালিককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পারিবারিক কলহের জের ধরে সোমবার রাতে ছোটভাই আব্দুল খালিক বড়ভাইয়ের স্ত্রী আম্বিয়া বেগমকে দা দিয়ে কুপাতে থাকে। এসময় স্বামী খলিল উদ্দিন স্ত্রীকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে খালিক বড়ভাইকে খলিলকেও উপর্যুপরি কুপিয়ে হত্যা করে। খবর পেয়ে পুলিশ মঙ্গলবার সকালে নিহতের লাশ উদ্ধার করে। হত্যাকান্ডের ৪ ঘন্টার মধ্যে অভিযান চালিয়ে হত্যাকারী খালিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বড়লেখা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে ছোটভাই খালিক তার বড় ভাই খলিলকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। স্বামী হত্যার ঘটনায় আহত স্ত্রী আম্বিয়া বেগম থানায় হত্যা মামলা করেছেন। পুলিশ আসামী আব্দুল খালিককে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেছে। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বিয়ানীবাজারে ব্যবসায়ীর ছাদ বাগান : ফলছে স্ট্রবেরি, কালো টমেটো ও ৭ ধরনের লেবু