বড়লেখায় যুবলীগ নেতা ও ব্যবসায়ী আলী হোসেনের (৩৮) ওপর হামলার প্রতিবাদে ও হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন হয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে বড়লেখা হাজীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ীরা পৌরশহরের মসজিদ মার্কেটের সামনে এই মানববন্ধনের আয়োজনে করেন।

মনববন্ধনে বক্তব্য রাখেন হাজী মস্তকিন আলী মার্কেটের সত্ত্বাধিকারী মো. শামীম আহমদ, মসজিদ মার্কেট দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ছালেহ আহমদ জুয়েল, হাজীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি আবুল হোসেন, ব্যবসায়ী জাবেদুল ইসলাম সবুজ প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা ব্যবসায়ী আলী হোসেনের ওপর হামলার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। অন্যাথায় কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলেও তারা ঘোষণা দেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত রবিবার ৭টার দিকে পৌর শহরের ফ্যামিলী বাজার ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের সামনে যুবলীগ নেতা আলী হোসেনের পথরোধ করে রিহান আহমদ ও তার সহযোগীরা। এরপর তাকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করা হয়। এসময় তার মোটরসাইকেলও ভাঙচুর করে হামলাকারীরা। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এই ঘটনায় পরদিন আলী হোসেন রিহান আহমদকে প্রধান আসামি করে ১২ জনের নামোল্লেখ ও ২০-৩০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে থানায় একটি মামলা করেন।

এদিকে ঘটনার পাঁচ দিন পেরিয়ে গেলেও হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মামলার বাদি আলী হোসেন। তিনি বলেন, ঘটনার ৫দিন পার হলেও পুলিশ এখনও কোনো আসামিকে গ্রেপ্তার করেনি। অথচ আসমিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তারা আবারও আমার ওপর হামলা করতে পারে। এতে আমি নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি।

এবিটিভির প্রতিবেদন-