বড়লেখা উপজেলার পল্লীতে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। আজ বুধবার দুপুর ২টার দিকে নিজ শয়ন কক্ষে ফাঁস দিয়ে সে আত্মহত্যা করে বলে স্থানীয়রা জানান। তবে লাশের ঝুলন্ত অবস্থা দেখে অনেকেই ভিন্নমত পোষণ করেন। এ নিয়ে এলাকায় বিভিন্ন ধরনের গুঞ্জন শোনা যায়।

আত্মহননকারি সুড়িকান্দি এলাকার চুলুপাড়া গ্রামের আব্দুস সামাদের স্ত্রী। স্থানীয়রা নিজ শয়ন কক্ষে গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ দেখে পুলিশে খবর দিয়েছেন। এক চালা শয়ন কক্ষের ভীমের সাথে দড়ি দিয়ে সে গলায় ফাঁস দেয়। তবে কি কারণে গৃহ বধূ আত্মহত্যা করেছেন তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি। তার ঝুলন্ত অবস্থায় থাকা মৃত দেহ নিয়ে স্থানীয়ভাবে গুঞ্জন চলছে।

জনৈক এলাকাবাসী বলেন, ঝুলন্ত অবস্থায় গৃহবধূর লাশ থাকলেও তার পা বেশ ভালভাবে মাটিতে রয়েছে। হয়তো তাকে হত্যা করে আত্মহত্যা হিসাবে চালানোর জন্য লাশ ঝুলিয়ে দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। এখন পুলিশে খবর দেয়া হয়েছ। পুলিশ আসার পর বুঝা যাবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা।

বড়লেখা থানা পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধারে ঘটনাস্থলে ছুটে এসেছে। লাশের সুরত হাল সম্পন্ন করে ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজারে পাঠানো হবে।