বড়লেখার চান্দগ্রাম আনোয়ারুল উলুম ফাজিল ডিগ্রি মাদ্রাসার ২৭ জন শিক্ষক-কর্মচারীর আগস্ট মাসের বেতনের প্রায় ৪ লাখ টাকা স্থানীয় জনতা ব্যাংক ছাড় না দেয়ায় শিক্ষকরা ৫ দিন ধরে কর্মবিরতি পালন করছেন। এতে মাদ্রাসার সহস্রাধিক শিক্ষার্থী পাঠগ্রহণ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

তবে জনতা ব্যাংকের ম্যানেজার শৈলেন্দ্র শর্মা বললেন বেতন বিল বিধিসম্মত না হওয়ায় তিনি বেতন ছাড় দেননি।

চান্দগ্রাম আনোয়ারুল উলুম ফাজিল ডিগ্রি মাদ্রাসার গভর্নিং বডির নির্বাচন নিয়ে অধ্যক্ষ মোস্তাক আহমদ চৌধুরীর সঙ্গে সভাপতি ময়নুল হক ও উপাধ্যক্ষ ওহীদুজ্জামান চৌধুরীর বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে প্রায় ৮ মাস পূর্বে গভর্নিংবডি অধ্যক্ষ মোস্তাক আহমদ চৌধুরীকে বরখাস্ত করে উপাধ্যক্ষ ওহীদুজ্জামান চৌধুরীকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিযুক্ত করে।

২৩ ফেব্রুয়ারি গভর্নিংবডির মেয়াদ শেষ হলে আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ৭ আগস্ট মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আশরাফুর রহমানকে সভাপতি করে এডহক কমিটি গঠন এবং বরখাস্ত অধ্যক্ষ মোস্তাক আহমদ চৌধুরীকে স্বপদে বহালের ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন।

এদিকে ৯ সেপ্টেম্বর মাদ্রাসার ২৭ জন শিক্ষক-কর্মচারীর আগস্ট মাসের ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৬৭০ টাকার বেতন বিল জনতা ব্যাংক বড়লেখা শাখায় জমা দেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ওহীদুজ্জামান চৌধুরী।