বিভাগীয় শহর সিলেটের সঙ্গে বিকল্প যোগাযোগ বিয়ানীবাজার-চন্দরপুর সড়কের কলেজ রোড অংশের বেহাল দশা। ছোট-বড় কয়েকশ’ গর্তে যান ও সাধারণ মানুষের চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে, বাড়ছে দুর্ঘটনা। সৃষ্টি হচ্ছে যানজট। অথচ এর সংস্কার নিয়ে পৌরসভার কোন উদ্যোগ দেখা যাচ্ছে না। সরেজমিনে দেখা যায়, কলেজ রোডের মোড় থেকে বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজ সম্মুখ পর্যন্ত সড়কের পলেস্তারা উঠে গিয়ে খানাখন্দ ও গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে ইট-সুরকি। অথচ দুই বছর আগে ২৪ লাখ টাকা ব্যয় করে উপজেলা প্রকৌশল অফিস সড়কের সংস্কার কাজ করেছিল।

বিয়ানীবাজার পৌরসভা সূত্রে জানা যায়, সড়কের উভয় পাশে সাড়ে ৩ ফুট করে ড্রেন নির্মাণ, ২২ ফুট প্রস্থ এবং ৩শ’ মিটার দৈর্ঘ্য ধরে একটি প্রস্তাব স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগে পাঠানো হয়েছে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ৯০ লাখ টাকা। পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত সহকারী প্রকৌশলী আশরাফুল ইসলাম বলেন, সড়কের সংস্কার ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজগুলো উপজেলা প্রকৌশল অফিস করার কথা। তবে সড়কের ক্ষতিগ্রস্ত অংশে আরসিসি ঢালাই ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য একটি প্রকল্প মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন পেলে আগামী শুষ্ক মৌসুমে ঠিকাদার নিয়োগ দেওয়া সম্ভব হবে।

উপজেলা প্রকৌশলী রামেন্দ্র হোম চৌধুরী বলেন, পৌরসভার মধ্যে সব কাজ পৌরসভা করার কথা। শিক্ষামন্ত্রীর নির্দেশে সড়কের ওই অংশে আমরা সংস্কার কাজ করেছিলাম। কিন্তু ড্রেন না থাকায় এ সংস্কার কাজ দীর্ঘস্থায়ী হয়নি।