বিশেষ প্রতিনিধি। ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৭।

কবির কথা- ‘কতটা পথ হাটলে তবে পথিক বলা যায়’। কবির কাব্যকথার সাথে মিল রেখে বলতে ইচ্ছে করে- আর কত দিন মেরামত কাজ করলে মেরামত শেষ বলা যায়- ঠিক তাই। বিয়ানীবাজার পল্লীবিদ্যুতের মেরামত কাজ ২০১৫ সাল থেকে শুরু হয়ে আজ পর্যন্ত চলছে। এর শেষ কবে সেটাই যেন জানে না বিয়ানীবাজার পল্লবিদ্যুৎ!

গত কয়েকদিন থেকে মেরামত কাজের নামে বিয়ানীবাজারে রোটেশনে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হচ্ছে। গ্রীষ্মে গরমের অযুহাত, বর্ষার ঝড় বৃষ্টির আর শীতে এসে মেরামত কাজ। এসব অযুহাতের কবলে পড়ে বিয়ানীবাজার বাসী বিদ্যুৎ সুবিধা বঞ্চিত। সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ সুবিধা বঞ্চিত উপজেলাবাসী পল্লীবিদ্যুতের বিমাতাসুলভ আচরণের শিকার।

আজ শুক্রবার বেলা ১টার পর থেকে টানা সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত বিদ্যুৎ ছিল না। মেরামত কাজ করতে কোন রকম ঘোষণা ছাড়াই দীর্ঘ সময় বিদ্যুৎ বঞ্চিত ছিল উপজেলাবাসী। আবার সন্ধ্যা আগামীকাল শনিবার সকাল সন্ধ্যা বিদ্যুৎ না থাকার প্রতিষ্ঠানিক ঘোষণা। মেরামত ও রক্ষাবেক্ষণ কাজের নামে পুরোদিন বিদ্যুৎ বঞ্চিত থাকবে শিক্ষামন্ত্রীর উপজেলা বিয়ানীবাজার। এই মাঘ শীতে এটা বিয়ানীবাজারের বাস্তব চিত্র।

বিয়ানীবাজার পল্লীবিদ্যুতের উপ ব্যবস্থাপক (ডিজিএম) আজিজুর রহমান সরকার বলেন, শুক্রবার সারাদিন গোলাপগঞ্জ ও ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা কাজ থাকায় সেখান থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। আগামীকাল শনিবার সকাল-সন্ধ্যা বিয়ানীবাজারে মেরামত কাজের জন্য বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন থাকবে। তিনি সাময়িক অসুবিধার জন্য উপজেলাবাসীর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।