বিয়ানীবাজার থেকে করোনা পরীক্ষার জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের ল্যাবে নতুন করে আরও ৪৭টি নমুনা পাঠানো হয়েছে। এর আগে শনিবার দিনভর পৌরশহরসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকার সন্দেহভাজনদের শরীর থেকে এসব নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে প্রেরণ করেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বশীলরা।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, সংগ্রহ করা এসব নমুনার মধ্যে রয়েছেন আলফা ক্লিনিকের ডা. সাদিকের সংস্পর্শে আসা ২৪জন, মোল্লাপুরের করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ রফিক উদ্দিনের সংস্পর্শে আসা ১০জন, প্রাইম ব্যাংক বিয়ানীবাজার শাখার কর্মরত গার্ড বেলালের সংস্পর্শে আসা ৩জন এবং মৃদু উপসর্গ যুক্ত ১০জন। এদের মধ্যে ২৫ জন পুরুষ আর ২২ জন মহিলা। এদের ৩৩জনই পৌরসভার বাসিন্দা বাকিরা পৌরসভার বাইরের এলাকার। প্রত্যেকের বয়স ৪ বছর থেকে ৭৫ বছর পর্যন্ত রয়েছে। পাশাপাশি নমুনা সংগ্রহ করা সকলের হোম কোয়ারান্টাইন নিশ্চিত এবং প্রয়োজনীয় সহযোগিতার জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের অনুরোধ জানানো হয়।

নমুনা সংগ্রহ টিমে অংশ নেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডাঃ আবু ইসহাক আজাদ, এমওডিসি ডাঃ ইফাজ সামিহ, এমটিইপিআই তপনজ্যোতি ভট্টাচার্য, ল্যাব টেকনিশিয়ান সুজন অহির, ওয়ার্ড বয় আকিভ আলী ও এম্বুল্যান্স চালক আনোয়ার হোসেন।

এদিকে, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, এ উপজেলা থেকে এখন পর্যন্ত ৯২২টি নমুনা ল্যাবে পাঠানো হয়েছে এবং ৮৭৫টি নমুনার প্রতিবেদন পাওয়া গেছে। নমুনার প্রতিবেদনগুলোর মধ্যে ১৪৩ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৬২জন এবং মারা গেছেন ৬জন।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

সবজির সাথে বেড়েছে আলুর দাম, নিত্যপণ্যের দাম স্থিতিশীল।। সাপ্তাহিক বাজারদর