বিয়ানীবাজার পৌরশহর থেকে ঔষধ কোম্পানির এক বিক্রয় প্রতিনিধিকে অপহরণ করে পালানোর সময় ৫ অপহরণকারিকে আটক করেছেন স্থানীয় জনতা। শুক্রবার দুপুর ২টায় অপহরণের পালানোর সময় বড়লেখার কাননগো বাজার এলাকায় অপহরণকারিদের গাড়ি আটক করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জনতা মাইক্রোর ভেতর থেকে হাত পা বাধা এক যুবককে উদ্ধার করেন। এ সময় ৫ অপহরণকারিকে উত্তম মধ্যম দিয়ে গাড়িসহ বড়লেখা থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করেন। পরে বড়লেখা থানা থেকে অপহৃত যুবকসহ অপহরণকারিকে বিয়ানীবাজার থানায় হস্তান্তর করা হয়।

অপহৃত আব্দুল করিম লস্কর এ্যাপেক্স ফার্মা কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধি। তিনি জকিগঞ্জ উপজেলার পূর্ব কসকনকপুর গ্রামের মৃত রফিক আহমদ লস্করের ছেলে। অপহরণকারি ৫জনের বাড়ি জুড়ী ও বড়লেখা উপজেলায়। অপহরণের সাথে জড়িতরা হলো মাহবুব, শাকিল, সুমন, রশিদ ও ফরমুজ। অপহরণকারিরা অপহৃত আব্দুল করিম লস্করের কাছে তাদের টাকা পাওনা ছিল। ব্যবসার ১৮ হাজার টাকা ভিকটিম না দেয়ায় তাকে জোর করে গাড়ি তোলে নেয় অভিযুক্তরা। কাননগো বাজার এলাকায় ভিকটিম পানি চাইলে অপহরণকারিরা গাড়ি থামায়। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে ভিকটিম গাড়ির কাঁচ ভেঙ্গে চিৎকার করলে স্থানীয় জনতা ধাওয়া করে কাননগো বাজার এলাকায় গাড়ি আটক করে।

বিয়ানীবাজার থানার ওসি হিল্লোল রায় বলেন, টাকা লেনদেন সংক্রান্ত ঘটনা থেকে তাকে অপহরণ করা হয়। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলস হয়েছে। শনিবার দুপুরে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হবে।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বিয়ানীবাজারের তেজপাতায় ’তেজ’ নেই