এর আগে এমনটা হয়েছে বলে কারো ধারণা নেই। এক সাথে বরণ ও বিদায়ের মঞ্চ বিয়ানীবাজার থানায় এর আগে কখনো হয়তো মঞ্চস্থ হয়নি। আজ বৃহস্পতিবার পাশাপাশি বসে ওসি শাহজালাল মুন্সী বিয়ানীবাজারকে বিদায় জানালেন। তাঁর স্থলাভিষিক্ত হওয়া ওসি অবনী শংকর শোনালেন আশার বাণী। গুরু সম্মোধন করে ওসি শাহজালাল মুন্সী পদাঙ্ক অনুস্মরণ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করলেন তিনি।

সন্ধ্যায় বিয়ানীবাজার থানার আমন্ত্রণে কর্মরত সাংবাদিকরা ওসির কার্যালয়ে মিলিত হন। নতুন ওসিকে স্বাগত জানিয়ে সাংবাদিক নেতারা সব ভাল কাজের সাথে পাশে থেকে সহযোগিতার আশ্বাস দেস। একই সাথে বিদায়ী ওসিকে পেশাগত জীবন আরও সমৃদ্ধ হোক এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

ওসি শাহজালাল মুন্সী দশ মাসের অভিজ্ঞতা, চ্যালেঞ্জ গ্রহণ শেষে এভাবে বিদায়ে কিছুটা কষ্ট পেয়েছেন। তার কথা ও অভিব্যক্তিতে সেটা ফুটে উঠে। তবে তিনি বিয়ানীবাজারবাসীকে একটি সুন্দর-পরিচ্ছন্ন থানা মসজিদ উপহার দিতে পেরে আনন্দ ও পুলক বোধ করছেন। তিনি বলেন, বিয়ানীবাজার উপজেলা হওয়ায় ২৮/২৯ লাখ টাকা খরচ করে মসজিদ সংষ্কার করতে পেরেছি। অন্য এলাকায় হলে হয়তো সেটা সম্ভব হতো না। আমি বিয়ানীবাজারবাসীর কাছে চির কৃতজ্ঞ। যেখানে থাকবো বিয়ানীবাজারের কথা মনে থাকবে এবং সময় সুযোগ পেলে বিয়ানীবাজারে ছুটে আসবো। অন্তত চেষ্টা করবো এ মসজিদে এক ওয়াক্ত নামাজ পড়ে যেতে। আগামী কাল শুক্রবার জুম্মার নামাজ পড়ে তিনি বিয়ানীবাজার ত্যাগ করবেন।

নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত ওসি অবনী শংকর কর বলেন, আমার জন্য বড় চ্যালেঞ্জ স্যারের (ওসি মুন্সী) স্বায়ত্ত অবস্থান ধরে রাখা। আমি কথা দিচ্ছি তাঁর মতো না পারলেও তাঁর মতো করে পরিশ্রম করবো। মাদক ও জুয়া মুক্ত বিয়ানীবাজারে এ দুইটির কোনটির কোন অস্থিত্ব থাকবে না জানিয়ে বলেন, এসবের বিরুদ্ধে আমার নিজের এ্যালার্জি আছে। সেজন্য আমি সকল সাংবাদিক বন্ধুদের সহযোগিতা চাই। আপনাদের সহযোগিতায় এ থানাকে একটি পরিচ্ছন্ন ও সুন্দর থানা হিসাবে গড়তে চাই। তিনি সাংবাদিকদের মাধ্যমে বিয়ানীবাজারের সকল মানুষের সহযোগিতা কামনা করেন।

সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সাংবাদিক এম হাসানুল হক উজ্জল, বিয়ানীবাজার জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি ও বিয়ানীবাজার নিউজ ২৪ সম্পাদক আহমেদ ফয়সাল, প্রেসক্লাব সম্পাদক ও মানব জমিনের উপজেলা প্রতিনিধি মিলাদ জয়নুল, রিপোর্টাস ইউনিটি বিয়ানীবাজারের সাধারণ সম্পাদক শাহীন আলম হুদয়, বিয়ানীবাজার জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সহ সভাপতি মুকিত মোহাম্মদ, ফয়জুল আলম শিমুল, সুফিয়ান আহমদ, সিপার আহমদ পলাশ, জসিম উদ্দিন, সামিয়ান হাসান, তোফায়েল আহমদ, আবু তাহের রাজু, রয়েল আহমদ, তাজবীর আহমদ ছাইম, আহমদ রেজা চৌধুরী, মামুনুর রশিদ প্রমুখ।