করোনা মহামারির সময়ে ভ্যাকসিন নিতে মানুষের দীর্ঘ লাইন। বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সব বয়সি মানুষের পাশাপাশি রয়েছেন রেমিটেন্সযোদ্ধারা। সোমবার থেকে চীনের তৈরী সিনোফার্মের ভ্যাকসিন প্রদান শুরু হয়েছে।

সিনোফার্মের ভ্যাকসিন প্রদান শুরুর চার দিনে ১২৪২ জন টিকা গ্রহণ করেছেন। এছাড়া টিকার রেজিস্ট্রেশন করতে গিয়ে আবার অনেকেই বিড়ম্বনায় পড়েছেন। সার্ভার মন্তর এবং বয়সসহ বিভিন্ন কারণে অনেকেই রেজিস্ট্রেশন করতে পারেননি।

বিয়ানীবাজারে আস্ট্রেজেনিকার কভিশিল্ড ভ্যাকসিন নিতে যারা অনাগ্রহ ছিলেন করোনার প্রকোপ বৃদ্ধিতে তারাই সবার আগে সিনোফার্মের ভ্যাকসিন নিতে হাসপাতালের লাইনে দাঁড়ান। তাদের একজন লায়ন সুহেল আহমদ রাশেদ। তিন পূর্বে রেজিস্ট্রেশন করলেও সে সময় টিকা নেননি বলে জানান। তিনি বলেন, করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতি দেখে দ্রুত টিকা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেই। বুধবার হাসপাতালে গিয়ে টিকা নেয়ার পর এখন কিছুটা হলেও স্বস্তিবোধ করছি। তার মতো আরো অনেক যুবক হাসপাতালে ভীড় করেছেন। সাংবাদিক আবু তাহের রাজু, তাজবীর আহমদ ছাইম, যুবলীগ নেতা ইফতেখার হোসেন হানিফ সাড়ে তিন আগে রেজিস্ট্রেশন করলেও টিকা নিয়েছেন গত বুধবার।

সিনোফার্মের টিকা শুরু দিন সোমবারের গ্রহণ করেন ২১৭ জন। পরদিন মঙ্গলবার ২৯৬জন, বুধবার ৩৩৩ জন এবং বৃহস্পতিবার ৩৯৬ জন টিকা নিয়েছেন।

এবিটিভির বিশেষ প্রতিবেদন

২ বছর ধরে কালভার্ট ভাঙ্গা বারইগ্রাম-আছিগঞ্জ সড়ক ব্যবহারকারীদের দূর্ভোগ