বিয়ানীবাজারে আওয়ামী লীগের ৭১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ‘সীমিত পরিসরে’ পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার বিকালে উপজেলা আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে কেক কাটা, সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান খানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মাকসুদুল ইসলাম আউয়ালের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত কর্মসূচিতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন বাবুল ও জাকির হোসেন, সাবেক ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা এম এ কাদির, মুড়িয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির, মোল্লাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আব্দুল কাদির, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক আহবায়ক বেলাল আহমদ, চেয়ারম্যান গৌছ উদ্দিন, বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের সাবেক জিএস জুবের আহমদ প্রমুখ।

করোনা মহামারির কারণে সীমিত পরিসরে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করার নির্দেশনা মেনেই এ আয়োজন জানিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান খান বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার প্রাচীনতম সংগঠনের একটি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। এ সংগঠনের প্রত্যেক নেতাকর্মী দেশ ও সমাজের কল্যাণে নিজেকে যুক্ত রেখেছে। যার কারণে দেশ জাতির পিতার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে উন্নয়নে সমৃদ্ধ হচ্ছে। তিনি বলেন, করোনাকালীন এ সময়ে আওয়ামী লীগসহ অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা অসহায় মানুষের পাশে দাড়িয়ে তাদের সর্বোচ্চ সহযোগিতা করুন।

এছাড়া উপস্থিত নেতৃবৃন্দ আওয়ামী লীগকে ওয়ার্ড এবং গ্রাম পর্যায়ে আরো শক্তিশালী করার লক্ষ্যে সকলকে একযোগে কাজ করার আহবান জানান। একই সাথে সরকারের উন্নয়ন ও ত্রাণ সহযোগিতা জনগনের কাছে তুলে ধরার তাগিদ দেন। এই করোনা দুর্যোগ সময়ে দেশের ৫০ লাখ পরিবারকে ছয়মাস পর্যন্ত আর্থিক সহযোগিতা সরকার দিচ্ছে- সেটা অনেক উন্নত দেশও দিতে পারেনি। যা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সরকার এই আওয়ামী লীগ সরকারের কারণেই এটি সম্ভব হয়েছে।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বিয়ানীবাজারে ইউএনও পুত্রসহ ৬জন করোনা রোগী শনাক্ত