বিয়ানীবাজারে আটতকৃত দুই অটোরিক্সা (টমটম, মিশুক ও ব্যাটারিচালিত রিক্সা) চোরকে জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে সংঘবদ্ধ এক চোরচক্রের সিন্ডিকেটের সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। বুধবার রাতে জনতার হাতে আটক হওয়া চোরচক্রের দুই সদস্যের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় ব্যাটারিচালিত একটি অটোরিক্সা (মিশুক)। একইসাথে অটোরিক্সা ব্যাটারি, মটর, ৮/১০টি নম্বর প্লেইটসহ বিভিন্ন ধরনের যন্ত্রাংশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বিয়ানীবাজারে অস্থায়ীভাবে বসবাসরত ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার স্বপন ও শেওলা ইউনিয়নের বালিঙ্গা গ্রামের মোস্তফাকে নিয়ে চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার করতে অভিযানে নামে থানা পুলিশ। পরে মোস্তফার বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমাণ ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সার মালামাল। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বিভিন্ন জায়গা থেকে চুরি করে আনা অটোরিক্সার যন্ত্রাংশ খোলে পৃথকভাবে বিক্রি করতো চক্রটি। অনেক সময় চুরি করা অটোরিক্সার বিভিন্ন অংশ রদবদল করে নতুনভবে রং করে বাজারজাতও  করতে তারা। চোরচক্রের আটক দুই সদস্যকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে, বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হিল্লোল রায় তদন্তের স্বার্থে চক্রটির বিষয়ে বিস্তারিত জানাননি। তবে এই চক্রের বিষয়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পুলিশ পেয়েছে জানিয়ে তাদের কাছ থেকে মালামাল উদ্ধার করেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন তিনি।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

চোর চক্রের তথ্য পেয়েছে বিয়ানীবাজারের পুলিশ চুরি যাওয়া অটোরিক্সাসহ মালামাল উদ্ধার