বিয়ানীবাজার নিউজ ২৪। ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭।

বিয়ানীবাজার উপজেলার দুবাগ ইউনিয়নের খাড়াভরা এলাকার সপ্তগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রবেশ পথ কেটে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। খাড়াভরা গ্রামের বদরুল হুদা বিদ্যালয়ের প্রবেশ পথের কিছু অংশ কেটে ফেলার পাশাপাশি বিদ্যালয়ের সম্মুখ ভাগের কিছু অংশে মাটি ভরাট করে দখলের চেষ্টা চালান। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

বিদ্যালয় সংশ্লিষ্টরা জানান, গত শুক্রবার ছুটির দিনে স্কুল বন্ধ ছিল। এ সুযোগে ভাড়া লোকদের দিয়ে বদরুল হুদা প্রধান সড়ক থেকে বিদ্যালয়ের প্রবেশ পথের কিছু অংশ কেটে ফেলেন। একই সাথে বিদ্যালয় সম্মুখ দিকের কিছু অংশ দখল করতে তিনি মাটি ভরাট করেন। এ সময় এলাকার লোকজন তাকে বাধা দিলে তিনি অশ্লীল আচরণ করেন। গত শনিবার এবং আজ রবিবার শিক্ষার্থীরা দখলের প্রতিবাদ জানিয়ে বিদ্যালয় এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেছেন। দখলের বিষয়টি আজ রবিবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও দুবাগ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ লিখিতভাবে অবহিত করেছেন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মীর মোহাম্মদ বলেন, ২০০১ সালে বিদ্যালয়টি স্থাপন করা হয়। দীর্ঘ ১৬ বছর পর শুক্রবার এলাকার জনৈক বদরুল হুদা তাদের পরিবারের দানকৃত ভূমি দখলের চেষ্টা করেন এবং বিদ্যালয় প্রবেশ পথের একটি অংশ কেটে ফেলেন। এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে আজ বরিবার লিখিতভাবে অবহিত করা হয়েছে।

বদরুল হুদা বলেন, বিদ্যালয়ের মধ্যে আমাদের মালিকা জমি রয়েছে। এসব জমির সীমানা নির্ধারণ করতে বিদ্যালয়ের দায়িত্ব¡শীলদের কাছে গত দুই বছর পূর্বে আবেদন করি। কিন্তু কোন সমাদান না পাওয়ায় নিজ উদ্যোগে কাজ করতে গিয়ে বাধার সম্মুখিন হই। তিনি বলেন, গ্রামের মুরব্বিরা আগামী বুধবার জমির সীমানার বিষয়টি সীমাংসার করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মু: আসাদুজ্জামান বলেন, বিদ্যালয়ে জমি সংক্রান্ত বিষয়ে কিছু ঝামেলা হয়েছে। এ বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।