প্রবাসী অধ্যুসিত বিয়ানীবাজার উপজেলায় করোনার সংক্রমনের প্রথম ঢেউয়ের মতো ভয়াবহরকম সংক্রমনের তৃতীয় ঢেউও চলছে। উপজেলাব্যাপী প্রতিদিনই করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হচ্ছেন। নতুন করে আরও দুজন রোগী আক্রান্ত হয়েছে। একইসাথে গত এক সপ্তাহে করোনায় সপ্তাহে দুজন রোগী মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নতুন করে আরও দুজন আক্রান্ত হওয়ার তথ্যটি নিশ্চিত করেছে। তাদের বাড়ি উপজেলার চারখাই ইউনিয়নে।

বিয়ানীবাজারে এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭০ জন। দেশে গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী ধরা পড়লেও বিয়ানীবাজারে ধরা পড়ে ওই বছরের ২৪ এপ্রিল। পৌরসভার একটি জুয়েলার্সের কারিগর বিয়ানীবাজারে আসার পর তার নমুনা নেয়া হলে তিনি করোনা পজেটিভ জন। এ নিয়ে উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৬ জন।

গত কয়েক মাসে করোনার প্রাদুর্ভাব সহনীয় মাত্রায় ছিল কিন্তু মধ্য মার্চ থেকে দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব অস্বাভাবিকভাবে বাড়তে থাকে। এ অবস্থায় বিশেষজ্ঞরা লোক সমাগম এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেয়ার সাথে মাক্স ব্যবহার ও দুরত্ব বজায় রেখে চলাচলের জন্য সর্বস্তরের মানুষের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বিয়ানীবাজার উপজেলার মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে ABtv'র কুইজ প্রতিযোগিতা, জিতে নিন আকর্ষণীয় পুরস্কার