বিয়ানীবাজারে সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহতদের একজন আরিয়ান এমদাদ ঢাকা নেয়ার পথে বুধবার রাতে মারা গেছে। অপর আহত ফয়ছল আহমদ সাগরকে ঢাকা প্রেরণ করা হয়েছে। বুধবার বিকাল ৩টার দিকে সিলেট-বিয়ানীবাজার অভ্যন্তরীণ মহাসড়কের থানাবাজার এলাকায় মালবোঝাই ট্রাকের সাথে সংঘর্ষে তারা আহত হন।

সিলেট থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেয়ার পথে নরসিংদী জেলার কাছাকাছি যাওয়ার পর এমদাদ এম্বুলেন্সে মৃত্যু বরণ করেন। বড়লেখার কর্মরত সাংবাদিক এম আতিকুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়ে নিজের ফেসবুক আইডিতে একটি পোস্ট করেছেন। নিহত এমদাদ বড়লেখার উপজেলার বর্ণী এলাকার নবাব আলীর পুত্র।

এর আগে, বুধবার বিকাল ৩টার দিকে বিয়ানীবাজার থেকে শাহজালাল ট্রেডার্সের একটি মালবাহী ট্রাক (সিলেট-ঢ, ১১-১৫১০) বারইগ্রাম যাওয়ার পথে থানা বাজার এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা মোটরসাইকেলের (ঢাকা মেট্টো ৬৩১৬) সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে মারাত্মক আহত হন মোটরসাইকেল আরোহী মো. এমদাদ হোসেন (১৭) এবং ফয়ছল আহমদ সাগর (৪১)। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর জরুরী বিভাগে নিয়ে আসেন। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাদের সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। আহত এমদাদের মাথায় এবং ফয়ছল আহমদ সাগরের মাথা ও কানে আঘাত পেয়েছেন।

এ ঘটনায় আহত অন্য আরোহী বড়লেখা উপজেলার হাটবন্দ এলাকার ফয়ছল আহমদ সাগর (৪১)। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় ফয়সল আহমদকেও ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। তারা দুজনে সম্পর্কে মামা-ভাগনা বলে জানা গেছে।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

নানা সমস্যায় জর্জরিত বিয়ানীবাজার ডাকঘর