ফুটবল খেলাকে সবসময় জনপ্রিয় রাখতে এবং সংশ্লিষ্টদের সুখ-দুঃখের সার্বিক যোগাযোগ অটুট রাখতে ‘বাংলাদেশ ফুটবল উন্নয়ন সমিতি’ প্রতিষ্ঠা করেন গ্রামীণ ফুটবল বিপ্লবী জালাল হোসেন লাইজু। এ সংগঠন এখন দেশের বিভিন্ন জেলা ও বিভাগ সমুহে শাখা বিস্তার করেছে। পাশাপাশি এ সংগঠনটি কাজ করছে তৃণমূল পর্যায় থেকে কিশোর ও তরুণ ফুটবলারদের তৈরি করার লক্ষ্য নিয়ে। এই লক্ষ্যে বাংলাদেশ ফুটবল উন্নয়ন সমিতি বিয়ানীবাজার উপজেলা শাখাও এতদাঞ্চলের তৃণমূল পর্যায় থেকে ফুটবলার বাছাই করার উদ্যোগ নেয়। ইতোমধ্যে পৌরসভাসহ উপজেলার ১০ ইউনিয়ন থেকে পর্যায়ক্রমে সহস্রাধিক ফুটবলার বাছাই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে সংগঠনটি।

এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার (১৯ অক্টোবর) দিনভর পৌরশহরের সুপাতলাস্থ এমএ ওসমানী স্টেডিয়ামে সংগঠনের দায়িত্বশীলরা প্রাথমিকভাবে বাছাইকৃত সহস্রাধিক ফুটবলার মধ্য থেকে ফাইনাল বাছাই প্রক্রিয়ার প্রথম ধাপ সম্পন্ন করেছেন। ফাইনাল বাছাইয়ের প্রথম পর্বে প্রায় শতাধিক খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন।

এদিন সকাল ১১টায় বাছাই কার্যক্রমের ফাইনাল পর্বের আনূষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুর কাশেম পল্লব।

অনুষ্ঠানে সুমন আহমদের সঞ্চালনায় এবং বাংলাদেশ ফুটবল উন্নয়ন সমিতি বিয়ানীবাজার উপজেলা শাখার সভাপতি তুতিউর রহমান তুতার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকসানা বেগম লিমা, বাংলাদেশ ফুটবল উন্নয়ন সমিতি বিয়ানীবাজার উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক জামাল আহমদ, ফুটবলার সাদ্দাম আহমদ, ইমরান আহমদ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ফাইনাল এই বাছাই প্রক্রিয়াটি সপ্তাহে খানেক চলবে বলেও নিশ্চিত করেছেন সংগঠনটি সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-