বিয়ানীবাজার উপজেলায় প্রায় তিন কিলোমিটার রাস্তার বেহাল অবস্থার কারণে দূর্ভোগ পোহাচ্ছেন তিন ইউনিয়নের কয়েক হাজার বাসিন্দা। উপজেলার বাউরভাগ-মাটিকাটা থেকে আলীপুর-দাসউরা পর্যন্ত গ্রামীন সংযোগ সড়কের প্রায় ৩ কিলোমিটার অংশের বেহাল দশায় তিন গ্রামের মানুষসহ সহস্রাধিক শিক্ষার্থ চরম ভোগান্তিতে রয়েছেন। রাস্তাটি দিয়ে যানবাহন চলাতো দূরের কথা পায়ে হেঁটে চলাও কষ্টকর। বিশেষ করে টানা বৃষ্টি ও ভারী বর্ষণে বিপাকে পড়তে হয় ওই এলাকার মানুষজনসহ কৃষক ও শিক্ষার্থীদের।

প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে এ দূর্ভোগ নিত্যসঙ্গী। টানা ও ভারী বর্ষণে প্রতিনিয়ত হাজার হাজার পথচারী, শিক্ষার্থী ও ছোট ছোট যানবাহন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। তবে সবচেয়ে বেশী দূভোর্গ পোহাতে হচ্ছে শিক্ষার্থী, রোগী ও গর্ভবতী মা-বোনদের। সড়কটি কাচাঁ, খানাখন্দে কর্দমাক্ত ও জলাবদ্ধতা এবং কয়েকটি স্থানে সরু হওয়ায় ছোট যানবাহন চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন থেকে প্রায় ৩ কিলোমিটার রাস্তার কোন কাজ হয়নি বলে স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তাদের অভিযোগ, এলজিইডি এমনকি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ থেকেও কোন কাজ করা হয়না।

জানা গেছে, উপজেলার মোল্লাপুর, তিলপাড়া এবং লাউতা ইউনিয়নের এই সংযোগ সড়কটি দিয়ে নিয়মিত যাতায়াত করেন ইউনিয়নগুলোর কয়েক গ্রামের মানুষ। শুষ্ক মৌসুমে রাস্তা দিয়ে কোনমতে হেটে চলাচল করা গেলেও রাস্তায় পর্যাপ্ত পরিমান মাটি না থাকায় এবং অসমতল হওয়ায় যান চলাচল সম্ভব হচ্ছেনা। ফলে কার্যত কোন উপকারে আসছে না রাস্তার উপর সরকারি ব্যায় নির্মিত দুইটি সেতু এবং স্থানীয় এক প্রবাসীর সিংহভাগ অর্থায়নের নির্মিত আরেকটি কালভার্ট। সম্প্রতি সেতু ও কালভার্টের মাটি সড়ে যাওয়াতে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে সড়ক যোগাযোগ। এলাকাবাসীর অর্থায়নে মাটি ভরাট করে চলাচল উপযোগী করা কিন্তু তা অপ্রাতূল্য।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, রাস্তাটি মাটি ভরাট করে চরাচল উপযোগী করলে দূর্গম এই এলাকায় যোগাযোগ ব্যবস্থায় আসবে যুগান্তকারী পরিবর্তন। জেলা সদর সিলেটে তিন ইউনিয়নের মানুষের যাতায়াত হবে আরও সহজ এবং সংক্ষিপ্ত। তাই এলাকাবাসীর দাবী রাস্তাটি যান চলাচল উপযোগী করে সংস্কার করার। এলাকাবাসির প্রত্যাশা, বিশাল জনগোষ্টির চলাচলের এই রাস্তাটি সংস্কারে দ্রুত উদ্যোগ নিবেন সংশ্লিষ্টরা।

মোল্লাপুর ইউনিয়নের চেয়াম্যান বলছেন, রাস্তাটি যানচলাচল উপযোগী করলে তার ইউনিয়নে বাসিন্দাদের দীর্ঘদিনের দাবী বাস্তবায়ন হবে। এই জন্য তার পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি।