বিয়ানীবাজারের চারখাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহমদ আলীর স্ত্রী নাজমা বেগম (৫০) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। রোববার রাতে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে প্রকাশিত করোনার নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদনে তার করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র জানায়, চারখাই ইউপি চেয়ারম্যান মাহমদ আলীসহ পরিবারের ৫ সদস্যদের শরীরের করোনা ভাইরাসের উপসর্গ থাকায় গত ২৩ জুন চেয়ারম্যানসহ ৪জনের নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে প্রেরণ করা হয়। সেসব রিপোর্ট এখনো আসেনি, তবে চেয়ারম্যানসহ সকলেই হোম কোয়ারেন্টাইনে অবস্থান করছেন। কিন্তু এর আগের দিন তার স্ত্রীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে মাউন্ট এডোরা হসপিটালে নিয়ে চিকিৎসা এয়া হয়। ২৭ জুন রাতে তিনি বাড়ি ফিরেছেন। এর আগে ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় তার নমুনা ল্যাবে পাঠায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। রোববার রাতে সেই নমুনা ফলাফল পজেটিভ আসে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আবু ইসহাক আজাদ জানান, মাহমদ আলীর স্ত্রী নাজমা বেগমের শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে এখন কিছুটা ভালো। নাজমা বেগমসহ পরিবারের সবাই চারখাই ইউনিয়নের কচকটখাঁ গ্রামস্থ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছেন। তিনি জানান, সোমবার তার বাড়িটি লকডাউন করা হবে।

এদিকে, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী প্রবাসী অধ্যুষিত বিয়ানীবাজার উপজেলায় এখন পর্যন্ত ৮৩জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৩১জন এবং মারা গেছেন ৫জন।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বর্ণাঢ্য কর্মজীবনের ইতি টানলেন অধ্যাপক দ্বারকেশ চন্দ্র নাথ