সকল জটিলতার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে সরব হয়ে উঠছে বিয়ানীবাজার পৌরশহরের কিচেন মার্কেট। বিশেষ করে মার্কেটটি উদ্বোধনের সাত বছরেও আন্ডারগ্রাউন্ডে নির্ধারিত মাছ বাজারটি চালু না হওয়ায় পৌর কিচেন মার্কেটে দেখা দিয়েছিল অচলাবস্থা। কিন্তু সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিয়ানীবাজার পৌরসভার নতুন পরিষদের নেতৃত্বে আলোচিত সেই মাছ বাজারটি চালু করা হয়েছে। শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) বিকালে মাছ বাজারটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র ফারুকুল হক, বিয়ানীবাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আশিক নূর, বিয়ানীবাজার সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মাসুক উদ্দিন, বিয়ানীবাজার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মেহেদী হাসান, পৌরসভার কাউন্সিলরবৃন্দ, মৎস্যজীবী নেতৃবৃন্দসহ স্থানীয় এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

জানা গেছে, কিচেন মার্কেটের দোকানকোটা বেদখল, ব্যবসায়ীদের অনিহা, কর্তৃপক্ষের সাথে মতানৈক্য, অবকাঠামোগত সমস্যা ও বাজার স্থাপন অনুপযোগীসহ নানা কারণে মার্কেটটিতে চলছিল অচলাবস্থা। ২০১৫ সালে কিচেন মার্কেট উদ্বোধনের পর ব্যবসায়ীদের ধর্মঘট, বাজার স্থানান্তর, শহরের প্রধান ফুটপাত দখল করে মাছ বাজার চালু, মৎস্য ব্যবসায়ীদের মতানৈক্যসহ ঘটেছে একাধিক নাটকীয়তা। পৌরসভার নির্বাচিত দ্বিতীয় পরিষদ দায়িত্ব গ্রহণের পর কিচেন মার্কেটের আন্ডার গ্রাউন্ডে মাছ বাজার স্থাপন করতে উদ্যোগ গ্রহণ করে। মৎস্য ব্যবসায়ীদের একাধিকবার আলোচনা এবং আন্ডারগ্রাউন্ডে মৎস্য ব্যবসায়ীদের সুবিধার্থে বাজার স্থাপন উপযোগী করে দেয়ার পরই সৃষ্ট সেই সংকটটি নিরসনের সফলতা ফিরে আসে।

এদিকে, কিচেন মার্কেটের আন্ডারগ্রাউন্ডে মাছ বাজার চালু হওয়ায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন পৌরসভার সচেতন মহল। তারা বলছেন, দীর্ঘ প্রায় সাত বছরেরও অধিক সময় ধরে চলে আসা সংকটময় পরিস্থিতির ইতি ঘটিয়ে আন্ডারগ্রাউন্ডে মাছ বাজার চালু হওয়ায় পরিপূর্ণতা পেয়েছে বিয়ানীবাজার পৌরসভার মালিকানাধীন কিচেন মার্কেট।

‌মসজিদের শহর বিয়ানীবাজার।। পর্ব#৫০।। আভঙ্গী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ