বিয়ানীবাজার উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের বাড়ুদা এলাকার যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রয়াত মানিক আলীর মালিকাধীন জমির বোরো ধান কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার দিবাগত রাতে কিংবা ভোর বেলা দুর্বৃত্তরা ধান কেটে নেয়।

যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রয়াত মানিক আলীর সন্তানরা ঢাকায় বসবাস করেন। তাদের অবর্তমানে স্থানীয় রাজু আহমদ জায়গা জমির দেখভাল করেন। শনিবার রাতে কেটে নেয়া জমির বোরো ধান বর্গাচাষ করেন একই এলাকার বদরুল আলম। এ ঘটনায় বিয়ানীবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন ভুক্তভোগীরা।

বর্গাচাষি বদরুল আলম বলেন, লোকমূখে শোনে গিয়ে দেখি জমির অর্ধেকের বেশি বোরো ধান কেটে নেয়া হয়েছে। আমাদের এলাকার এক ব্যক্তির শ্বশুড় বাড়ি শাহবাজপুর থেকে গাড়ি নিয়ে এসে ধান কেটে নিয়ে যায়- স্থানীয় প্রত্যক্ষর্শীরা আমাকে এ তথ্য দেন। এ ঘটনাটি ঢাকা বসবাসরত মাহবুবুল করিমকে জানিয়েছি।

স্থানীয় এক যুবক বলেন, জমির মালিকানা নিয়ে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা মালিক আলীর সন্তানদের সাথে তাদের চাচার বিরোধ রয়েছে। জমির ধান কেটে নেয়ার এ ঘটনাটি জমির মালিকানা সংক্রান্ত বিরোধ থেকে হতে পারে। এছাড়া আমাদের এলাকায় কোনদিন জমি থেকে পাকা ধান কেটে নেয়ার মতো ঘটনা এর আগে ঘটেনি।

বিয়ানীবাজার থানা পুলিশকে এ ঘটনাটি অবহিত করেছেন জানিয়েছে যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্দা প্রয়াত মানিক আলীর পুত্র এডভোকেট মাহবুবুল করিম বলেন, জমি চাষের জন্য বর্গা দেয়া হয়েছিলো। রবিবার সকালে বর্গাচাষি বদরুল আলম জানান রাতের বেলা জমির ধান কে বা কারা কেটে নিয়ে। যারাই কেটেছে তারা দুর্বৃতত্তায়ন করেছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছি। এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, জায়গার মালিকানা আমাদের। এ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় সকল কাগজ পত্র আমাদের কাছে রয়েছে। কেউ যদি জায়গার মালিকানা দাবি করে তাহলে আমাদের অবর্তমানে সেটি করছে।

বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হিল্লোল রায় বলেন, ঢাকা থেকে মুঠোফোনে এ ঘটনাটি আমাদের জানানো হয়েছে। আমরা অভিযোগ দেয়ার জন্য বলেছি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

তিলপাড়ায় ইসলামী যুব সংঘের উদ্যোগে অসহায়দের নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান