বিয়ানীবাজার উপজেলার বিভিন্ন ভাঙাচোরা সড়ক নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। তিনি বলেন, সিলেট থাকি বিয়ানীবাজার খেলাত আইবার লাগি রওয়ানা দিছি। কিন্তু বিয়ানীবাজার আইবার আগেউ আমার কোমর ভাঙ্গি গেছে।

শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) বিকেলে বিয়ানীবাজার পৌরশহরের পিএইচজি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে মাঠে ব্যারিস্টার সুমন ফুটবল একাডেমী ও বিয়ানীবাজার ফুটবল একাদশের মধ্যকার প্রীতি ফুটবল ম্যাচ শুরুর আগে আলোচনা সভায় তিনি এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এসময় তিনি সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খানের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, আপনাদের বিয়ানীবাজার অনেক সুন্দর এলাকা। আমি আগামী বছরও বিয়ানীবাজারে খেলতে আসতে চাই। তবে আপনাদের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার যে বেহাল দশা সেদিকে নজর দিন।

বিয়ানীবাজারবাসীর সাথে আত্মীয়তা করে সম্পর্কটা ধরে রাখতে চান উল্লেখ করে সাবেক শিক্ষামন্ত্রীর সাথে দেখা হলেও রাস্তাঘাটের বেহাল চিত্র তুলে ধরবেন বলেও বক্তব্যে বলেন। ব্যারিস্টার সুমন বলেন, বিয়ানীবাজার যদি খেলার জন্য না আসতাম, তাহলে আপনাদের রাস্তাঘাটের চিত্র ফেইসবুক লাইভে তুলে ধরে অপমান করতাম।

১-১ গোলে সমতায় শেষ হওয়া খেলার প্রাক্কালে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মো. আব্দুস শুকুর, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (জকিগঞ্জ সার্কেল) সুদীপ্ত রায়, সিলেট মহানগর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মুশফিক জয়াগীরদার, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ইসলাম উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল বারী, এডভোকেট আব্বাছ উদ্দিন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবাদ আহমদ, বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিল্লোল রায়, ইউপি চেয়ারম্যান শিহাব উদ্দিন ও আব্দুল মন্নান, পিএইচজি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল হাছিব জীবন।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বিয়ানীবাজারে শিক্ষা উন্নয়ন ট্রাষ্টের উদ্যোগে সুবিধাবঞ্চিত শিক্ষার্থীদের নগদ অর্থ সহায়তা