বিয়ানীবাজারের বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতে গ্যাস সংযোগের রাইজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পৌরসভার সুপাতলা গ্রামের দুটি বসতবাড়ি এবং উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের বড়দেশ এলাকার একটি বাড়ির গ্যাস সংযোগের রাইজারে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তবে এসব দুর্ঘটনায় কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

জানা যায়, শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বিয়ানীবাজার পৌরসভার সুপাতলা গ্রামের দুটি বসতবাড়ি এবং উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের বড়দেশ এলাকার একটি বাড়ির গ্যাসের রাইজারে বজ্রপাতের পড়ে আগুন ধরে যায়। গ্যাসের রাইজারে আগুন জ্বলতে দেখে স্থানীয়রা চারদিক ছোটাছুটি করে পানি ও বালু দিয়ে আগুন নেভাতে চেষ্টা করে। পরে খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার ফায়ার এন্ড সিভিল ডিফেন্স সার্ভিস স্টেশনের একটি টিম পৌরসভার সুপাতলা গ্রামে দ্রুত পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে বড় ধরনের বিপদ থেকে রক্ষা পায় আবাসিক এই এলাকাটি। এসময় খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মো. আব্দুস শুকুরও দুর্ঘটনাস্থলে উপস্থিত হোন।

এদিকে, মুড়িয়া ইউনিয়নের বড়দেশ গ্রামের নাপিত বাড়ির গ্যাস সংযোগের রাইজারেও অগ্নিকাণ্ড স্থানীয় এলাকাবাসীর সহযোগিতায় নিয়ন্ত্রণ করা হয়। এতে দুর্ঘটনার কবল থেকে রক্ষা পাশ আশপাশের বেশ কয়েকটি বসতবাড়ি।

বিয়ানীবাজার ফায়ার এন্ড সিভিল ডিফেন্স সার্ভিস স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার মহরম আলী জানান, প্রথমে সুপাতলা গ্রামের দুটি গ্যাসের রাইজারে অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই। পরে বড়দেশ গ্রামে যাবার আগেই খবর পাই স্থানীয়দের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রিত হয়েছে। তিনি বলেন, দুর্ঘটনায় গ্যাস সংযগের রাইজারগুলোই শুধুমাত্র ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। তবে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। সুপাতলার দুর্ঘটনা কবলিত স্থানে দ্রুত পৌছে যাওয়ায় এবং বড়দেশ গ্রামবাসীর বিচক্ষণতা বড়ধরনের ক্ষয়ক্ষতি থেকে দুটি এলাকার মানুষজন রক্ষা পেয়েছেন বলেও জানান তিনি।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বিয়ানীবাজার উপজেলার অন্যতম দৃষ্টিনন্দন মসজিদ কাকরদিয়া মাইজভাগ জামে মসজিদ