সম্প্রতি বর্ষণে বিয়ানীবাজারের উচপাড়া-গোডাউন-জলঢুপ সড়কের একাংশে ধস নেমেছে। দীর্ঘদিন থেকে সড়কের ধস নামলেও উপজেলা প্রকৌশল অফিসের দায়িত্বশীলরা সড়ক সংস্কারের কোন উদ্যোগ নেয়নি। ফলে এলাকাবাসী সড়কটি চলাচল উপযোগী করতে স্থানীয়ভাবে সংস্কারের উদ্যোগ নিয়েছেন।

প্রবল বর্ষণের তোড়ে সড়কের প্রায় ৩৯ ফুট অংশের অর্ধেকের চেয়ে বেশিভেঙ্গে পাশের নালায় বিলিন হয়েছে। সড়কের পাশে থাকা গার্ড ওয়ালও ভেঙ্গে গেছে। এ অবস্থায়

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়,উপজেলার মুল্লাপুর ইউনিয়নের গোডাউনবাজার থেকে উচপাড়া হয়ে রঢুপ এলাকায় গিয়ে প্রধান সড়কের সাথে এ সড়ক যুক্ত হয়েছে। সড়কের ওই অংশ ভেঙ্গে সরু হওয়ায় অটোরিক্সা থেকে কোন ধরনের যান চলাচল করতে পারছেনা। স্থানীয় সড়ক চলাচল উপযোগী করতে বাঁশ দিয়ে আড়া দিয়েছেন। সেখানে মাটি ও ইট সুরকি ফেলে সাময়িকভাবে যান চলাচল করার উপযোগী করবেন।

প্রতিদিন এই রাস্তা দিয়ে ঝুকি নিয়ে এলাকাবাসীসহ বিয়ানীবাজার মহিলা কলেজ, জলঢুপ উচ্চ বিদ্যালয় এবং জলঢুপ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩ শতাধিক শিক্ষার্থী চলাচল করছেন।

বিয়ানীবাজার সরকারী কলেজের শিক্ষার্থী আমিনুল ইসলাম বলেন, আমাদের চলাচলের গুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তা দীর্ঘ দিন থেকে ভেঙ্গে ভেঙ্গে যাচ্ছে। অথচ এত দিন থেকে সংস্কারের কোন উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না। এভাবে কয়েকদিন থাকলে একেবারে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে।

রাস্তা সংস্কারের দাবী জানিয়ে উচগ্রাম এলাকার বাসিন্দা শামিম আহমদ বলেন, অনেক অপেক্ষার পর আমরা নিজেরা উদ্যোগ নিয়ে সাময়িকভাবে চলাচলের জন্য সংষ্কার করছি। অথচ এখন পর্যন্ত সরকারের স্থানীয় পর্যায়ের কোন দায়িত্বশীল সড়ক পরিদর্শনে আসেননি।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে উপজেলা প্রকৌশল অফিসের প্রকৌশলী রামেন্দ্র হোস চৌধুরীকেত মোবাইল ফোনে পাওয়া যায়নি। ফলে জানা যায়নি সড়কের ক্ষতিগ্রস্থ অংশ সংস্কারের জন্য কোন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে কি না।