বিশ্বকাপে ব্রাজিলের প্রথম ম্যাচে সার্বিয়ার বিপক্ষে পায়ে চোট পান নেইমার। ব্রাজিলের কোচ লিওনার্দো তিতে জানিয়েছিলেন গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচে নেইমারকে পাওয়ার সম্ভাবনা নেই। বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে তাকে পাওয়ার আশা করছেন তিনি।

তবে নেইমারের চোট সেরে না ওঠায় তার আশঙ্কা রয়েছে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার। ব্রাজিলের মেডিক্যাল টিম বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলারের সেরে ওঠার গতিতে সন্তুষ্ট নন বলে দাবি করেছে ব্রিটিশ পত্রিকা দ্য মিরর।

তাদের এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে যে, নেইমারের পায়ে ফুলে যাওয়াকে শুরুতে গুরুতর না ভাবলেও পরে দেখা গেছে যে তার লিগামেন্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, যা থেকে সেরে উঠতে অন্তত তিন সপ্তাহ লাগবে। তেমনটা হলে বিশ্বকাপেই আর খেলা হবে না ব্রাজিলের নম্বর টেনের।

নেইমারকে নিয়ে শুরুতে আশাবাদী মন্তব্য করলেও ব্রাজিলের কোচ এখন বেশ সতর্ক। ব্রাজিলের সবশেষ গ্রুপ ম্যাচে ক্যামেরুনের বিপক্ষে নামার আগে তিতে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, তার খেলোয়াড়দের অবস্থা কী সেটা তার চেয়ে দলের চিকিৎসকরা ভালো জানেন।

তিতে যোগ করেন, ‘আমার বিশ্বাস, নেইমার ও দানিলো বিশ্বকাপে খেলবে। তবে ইনজুরির অবস্থা নিয়ে কথা বলার জন্য আমি উপযুক্ত লোক নই।’

ব্রাজিল আজ রাত ১টায় ক্যামেরুনের বিপক্ষে গ্রুপপর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলবে। সার্বিয়া ও সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে জিতে এরই মধ্যে তারা নকআউট নিশ্চিত করেছে।

‌ সিলেটে সাড়া ফেলেছে বড়লেখার যুবকের ‌‍‌''ফাইন্ড ডক্টরস অ্যাপ''