শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, দেশের পরিবর্তন দেখে উন্নতি দেখে আমাদের দেশের একটি বিশেষ দল ঈর্ষান্বীত হয়ে নতুন করে ষড়যন্ত্র করছে। এসব ষড়যন্ত্র আওয়ামী লীগের নেতারা প্রতিহত করবে। একাত্তরের পরাজিত শত্রু জামায়াত-শিবির আবার রক্তাক্ত করছে আমাদে এ পবিত্র ভূমি উল্লেখ করে তিনি বলেন, সিলেটে শিবির সন্ত্রাসীদের হাতে মাথিউরার সন্তান ছাত্রলীগ কর্মী আফিস ও ছাত্রলীগ কর্মী শাহীন রক্তাক্ত করেছে। এসব সন্ত্রাসীদের সমাজ ও দেশ থেকে বিতাড়িত করতে হবে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে বিয়ানীবাজার উপজেলার মাথিউরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কর্মী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিনের এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ ও জেলা ছাত্রলীগ নেতা আমান উদ্দীনের যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাসিব মনিয়া, সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান খান, পৌর মেয়র আব্দুস শুকুর, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন বাবুল ও জাকির হোসেন, সিলেট যুবলীগের সহ সভাপতি আব্দুল বারী, শিক্ষামন্ত্রীর এপিএস মাকসুদুল ইসলাম আউয়াল, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য এড. আব্বাছ উদ্দীন, মাথিউরা ইউপি চেয়ারম্যান সিহাব উদ্দীন প্রমুখ।

কর্মী সভায় বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শাহাব উদ্দিন মৌলা, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক আহবায়ক বেলাল আহমদ, মাথিউরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হোসেন আহমদ, আওয়ামী লীগ নেতা রফিক উদ্দিন ও আলতাফ হোসেন, বিয়ানীবাজার নিউজ ২৪ এর সম্পাদক আহমেদ ফয়সাল, ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক দেলওয়ার হোসেন জিলু, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি বিলাল উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক খায়রুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা ইকবাল হোসেন তারেক, শরিফুল ইসলাম ও জাবের আহমদ প্রমুখ।

বক্তারা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের উপজেলা কমিটি গঠনের জোর দাবি জানান। তাদের বক্তব্যে  বিগত সময়ের সংগঠনের বিভিন্ন কার্যক্রমে অসন্তুষ্ঠি ফুটে উঠে।

শিক্ষামন্ত্রী কর্মী সভার সমাপনী বক্তব্যে সংগঠনের সকল ইউনিটের কমিটির গঠনের আশ্বাস প্রদান করেন। বিশেষ করে ছাত্রলীগের কমিটি গঠনের জন্য প্রাথমিক আলোচনা করার জন্য উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদককে নির্দেশ প্রদান করেন।