আম্পায়ারের সঙ্গে অশোভন আচরণ করায় জরিমানার মুখে পড়েছেন সাকিব আল হাসান। সোমবার ঢাকা ডায়নামাইটস ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মধ্যকার ম্যাচ চলাকালীন অনফিল্ড আম্পায়ারের সঙ্গে বাজে আচরণ করেন সাকিব। যে কারণে জরিমানার মুখে পড়েন ঢাকার অধিনায়ক।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের ইনিংসের নবম ওভারে ইমরুল কায়েসের বিপক্ষে লেগ বিফোর আউটের জোরালো আবেদন জানান সাকিব। আম্পায়ার র‌্যানমোর মার্টিনেজ সেই আবেদনে সাড়া না দিয়ে বাজে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন ঢাকা ডায়নামাইটসের অধিনায়ক। যে কারণে সাকিবকে ম্যাচ ফি’র ৫০ শতাংশ জরিমানা করার পাশাপাশি তার নামের সঙ্গে ৩ ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ করা হয়।

বিপিএলের পঞ্চম আসরে সাকিবের নামের পাশে আর মাত্র একটি ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হলেই এক ম্যাচ নিষিদ্ধ থাকবেন তিনি। প্রায় একই ধরনের ঘটনায় নিষেধাজ্ঞার মুখে রয়েছেন সাব্বির রহমান, লিটন দাস ও তামিম ইকবালও। এই তিনজনের নামের পাশেও ৩টি করে ডিমেরিট পয়েন্ট রয়েছে।

ঢাকা ও কুমিল্লার মধ্যকার হাইভোল্টেজ ম্যাচটিতে বেশ উত্তেজনা ছড়ায়। সেই উত্তেজনায় যোগ দিয়ে জরিমানা গুনেন হাসান আলিও। মোসাদ্দেক হোসেনকে আউট করে ড্রেসিং রুমের পথ দেখানোয় ম্যাচ ফি’র ৩০ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে হাসানকে। ম্যাচটিতে ৫ উইকেট নিয়ে সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার লাভ করেন কুমিল্লার পাকিস্তানি পেসার।

সাকিব ও হাসান আলি দুজনই ম্যাচ রেফারি সামিউর রহমানের কাছে দোষ স্বীকার করে নিয়েছেন। যে কারণে আনুষ্ঠানিক শুনানির প্রয়োজন হয়নি।