আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম টিওয়াইসির দাবি, আরও এক বছর বার্সায় থাকছেন মেসি। তবে আজও অনুশীলন করেননি লিও মেসি। তার আইনজীবীর বিবৃতি, ফ্রি এজেন্ট হিসেবে ক্লাব ছাড়ার অধিকার আছে এলএমটেনের।

এ যেন খন্ডকালীন থেকে ধারাবাহিকে রূপ নিয়েছে মেসি-বার্সা বিচ্ছেদ নাটক। সপ্তাহ পেরুলেও, আর্জেন্টাইন ক্ষুদে যাদুকরের ভবিষ্যত এখনও আটকে আছে গুঞ্জনে।

তবে বার্সেলোনা সমর্থকদের স্বস্তি হয়ে এসেছে আর্জেন্টাইনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টের শুক্রবারের এক এক্সক্লুসিভ প্রতিবেদন। যেখানে দাবি করা হয়েছে, ক্লাবের সাথে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক বিবেচনায় ও আইনি জটিলতা এড়াতে চুক্তি অনুযায়ী আরও এক বছর বার্সাতেই থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মেসি। যদিও প্রতিবেদনের স্বপক্ষে কোন জোড়ালো প্রমাণও উপস্থাপন করতে পারেনি সংবাদমাধ্যমটি।

যদিও জল ঘোলা করেছে একই দিন মেসির আইনজীবির এক বিবৃতি। যেখানে দাবি করা হয়েছে, ফ্রি এজেন্ট হিসেবে এখনো ক্লাব ছাড়ার পূর্ণ অধিকার রাখেন লিও।

বিবৃতিতে সংযুক্ত করা হয় লা লিগা কর্তৃপক্ষকে পাঠানো, মেসির বাবা ও এজেন্ট হোর্হের চিঠি। যেখানে তিনি দাবি করেন, বার্সা ছাড়তে চাইলে বাধা হতে পারবেনা ৭০০ মিলিয়ন ইউরো রিলিজ ক্লজ। চিঠিতে লা লিগা কর্তৃপক্ষকে বার্সার প্রতি পক্ষপাতমূলক আচরণ করছে বলেও অভিযোগ করেন হোর্হে।

যুক্তি হিসেবে চুক্তির একটি ধারাও উল্লেখ করেন তিনি। যেখানে উল্লেখ আছে, ফ্রি এজেন্ট হিসেবে দল ছাড়তে চাইলে ২০১৯- ২০ মৌসুম শেষের আগে ক্লাবকে জানাতে হবে লিওকে। সে হিসেবে বার্সা ও লা লিগার ৭০০ মিলিয়ন রিলিজ ক্লজের দাবি অগ্রহনযোগ্য বলে জানিয়েছেন হোর্হে।

এদিকে, মেসি বিচ্ছেদের মাঝেই আইনী জটিলতায় পড়েছেন নেপথ্য খলনায়কের রূপ নেয়া বার্সা সভাপতি জোসে বার্তোমিউ। ক্লাবের প্রভাব খাটিয়ে দুর্নীতির অভিযোগে তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

সূত্র: চ্যানেল২৪

এবিটিভির প্রতিবেদন-

জকিগঞ্জ: কাঁচা সড়কে হেঁটে চলাও দায়