ক্রিকেট বিশ্বকাপ-২০১৯ এর সেমিফাইনালে উঠার মিশন নিয়ে আগামী ২ জুলাই বিকেল সাড়ে ৩টায় ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামছে টাইগাররা। ভারত-বাংলাদেশ মধ্যকার এ খেলাটি অনুষ্ঠিত হবে যুক্তরাজ্যের দ্বিতীয় বৃহত্তম ক্রিকেট স্টেডিয়াম বার্মিংহামের এজবাস্টন ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। ভারতের বিপক্ষে খেলা হলেও ওই দিন এজবাস্টন ক্রিকেট স্টেডিয়াম থাকবে সিলেটীদের দখলে। গ্যালারি দিকে তাকালে যে কারো মনে হবে সিলেটের স্টেডিয়ামে খেলা হচ্ছে। বাউন্ডারি হলেই হৈ-হুলোড় দেখে বুঝার উপায় থাকবে না খেলাটির আয়োজক রাণীর দেশ ইংল্যান্ড।

এজবাস্টনের ২৫ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতার স্টেডিয়ামে এক সপ্তাহে আগেই শেষ হয়ে যায় টিকেট। প্রচুর ভারতীয়রা বসবাস করার পরেও ওই দিন মাঠে বাংলাদেশি দর্শক সংখ্যা অর্ধেক ছাড়িয়ে যাবে বলে বার্মিংহামে অবস্থানরত টাইগাররা সমর্থকরা ধারণা করছেন।

এদিকে, অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে টিম বাংলাদেশের পাশাপাশি ঐ ম্যাচে বাংলাদেশ ভক্ত ও সমর্থকদের জন্যও থাকছে এক বিরাট চ্যালেঞ্জ। সম্ভবত এবারের বিশ্বকাপে আগামী ২ জুলাই এ শহর তথা ইংল্যান্ডের অন্যতম অভিজাত ক্রিকেট ভেন্যু এজবাস্টনে প্রথমবারের মত বাংলাদেশি সাপোর্টারদেরও দিতে হবে কঠিন পরীক্ষা।

অপরদিকে, ক্রিকেট বোদ্ধাদের ধারণা এই মাঠে ভারতীয় সমর্থক থাকবে বেশি। এটুকু শুনে আবার ভাববেন না, বার্মিংহামে বুঝি প্রবাসী বাঙালি কম। বাংলাদেশিদের সমাগম তাই কম ঘটবে। বিষয়টি আসলে মোটেও তেমন নয়। লন্ডন, কার্ডিফ, ব্রিষ্টল, টনটন, নটিংহ্যাম, সাউদাম্পটনের মত বার্মিংহামের এজবাস্টনেও বাংলাদেশিদের ঢল নামবে। তবে সেদিন হয়তো বাঙালিরা সংখ্যাগরিষ্ঠ থাকবেন না। কারণ আগামী ২ জুলাই টাইগারদের ম্যাচ ভারতের বিপক্ষে, আর বার্মিংহামে প্রচুর ভারতীয়।