ভোর ৬টা থেকে সকাল ১০টা। মাত্র ৪ ঘন্টার জন্য বারইগ্রাম-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের শেওলা সেতুর ফলক চত্বরের চারপাশে জমে উঠে শীতের ফল শসার হাট। প্রতিদিনই ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গেই দুবাগ ও মুড়িয়া ইউনিয়নসহ আশপাশ এলাকায় উৎপাদিত শসার পসরা সাজিয়ে বসেন স্থানীয় কৃষকরা।

কোন ধরনের রাসায়নিকের ব্যবহার ছাড়াই শুধুমাত্র জৈবসার প্রয়োগে এসব শসা উৎপাদিত হয় বলে পাইকারি বাজারে কদরও বেশি। প্রায় মাস তিনেক ধরে শেওলা সেতু এলাকায় প্রায় প্রতিদিনই বসছে এই অস্থাযী বাজারটি। শসা কিনতে পার্শ্ববর্তী জেলা-উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চল থেকে পাইকাররা ছুটে আসেন এখানে। প্রতিদিন দুই থেকে তিন লাখ টাকার শসা বিক্রি হয় বাজারটিতে।

কীটনাশকমুক্ত তাজা শসা কিনতে পাইকারদের পাশাপাশি সাধারণ ক্রেতারাও ভিড় করেন এখানে। তবে শসার বাজারমূল্য নিগামী হওয়ায় কিছুটা বিপাকে কৃষকরা।

কৃষিবিদরা বলছেন সঠিক দাম নির্ধারণ ও বাজার ব্যস্থার উন্নয়ন সাধনের মাধম্যে কৃষকদের উন্নয়ন ঘটাতে চাইলে স্থানীয় উদ্যোক্তাদের এগিয়ে আসতে হবে।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বিয়ানীবাজারে শসার হাট!