চলতি মৌসুমের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে সীমান্তবর্তী বিয়ানীবাজার উপজেলায়। এ কারণে পৌরসভাসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় জলজট সৃষ্টি হয়ে বন্যা পরিস্থিতিতে পরিণত হয়েছে। প্লাবিত হয়েছে নিম্নাঞ্চল ও অনেক রাস্তাঘাট।

প্রবল বর্ষণের সঙ্গে মুহুর্মুহু বজ্রপাতে গত রোববার রাত থেকে বুধবার দুপুর পর্যন্ত আতঙ্কে কেটেছে বিয়ানীবাজারবাসীর। টানা বর্ষণ ও উজান থেকে আসা পাহাড়ি ঢলে নদী ও হাওরের পানি বাড়া অব্যাহত আছে। লোকালয়ে পানি প্রবেশ করায় দুশ্চিন্তায় দিন কাটাচ্ছেন বিভিন্ন এলাকার মানুষ। প্লাবিত হয়েছে রাস্তাঘাট, দোকান ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

অতিবৃষ্টি ও ঢলের পানিতে বিয়ানীবাজার-সিলেট সড়কের বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হওয়ায় সড়ক সরাসরি যান চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে। সড়কের আঙ্গাজুর এলাকা থেকে শুরু করে আলীনগর পর্যন্ত অংশের বিভিন্ন স্থানের সড়ক ও নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

সুরমা, কুশিয়ারা, সুনাই ও বরুরদল নদীসহ বিভিন্ন হাওর ও খালবিলে পানি বাড়ছে। চারখাই, শেওলা, দুবাগ, কুড়ারবাজার, মুড়িয়া, লাউতা, মাথিউরা ও তিলপাড়া ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এর মধ্যে তিলপাড়া ইউনিয়নের মাটিজুরা ও মাথিউরা ইউনিয়নের বেজগ্রামসহ গ্রামের সড়ক যোগাযোগের একমাত্র রাস্তার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে ঢলের পানি। পানির প্রবল স্রোতে ভেঙে গেছে সড়কের কয়েকটি অংশ।