তারকা ক্রিকেটার তামিম ইকবাল ও মেহেদী মিরাজের একটি ফোনালাপ মঙ্গলবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। যাতে ‘তামিম-মুশফিক দ্বন্দ্বের’ ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। ওই ফোনকলে মুশফিককে নিয়ে মেহেদী মিরাজের কাছে নালিশ করেছেন তামিম।

বিপিএলে তারা এক সঙ্গে খেলেছেন। ফরচুন বরিশালকে চ্যাম্পিয়ন করেছেন। এরপর অধিনায়ক তামিমকে না জানিয়ে মুশফিক নতুন দল গড়ছেন এমন অভিযোগ তামিমের। দুই তারকার মধ্যে আসলে কী হয়েছে তা খোলাসা করতে বুধবার সন্ধ্যয় নিজের ফেসবুক পেইজ থেকে লাইভে আসার ঘোষণা দিয়েছেন তামিম।

ওই লাইভে পুরো বিষয়টি তিনি পরিষ্কার করবেন বলে জানিয়েছেন। তামিম ও মুশফিক দীর্ঘদিনের বন্ধু। দীর্ঘদিন একসঙ্গে জাতীয় দলে খেলেছেন। তামিম এখন জাতীয় দলের বাইরে আছেন। সেজন্য তার সঙ্গে মুশফিক এমনটা করেছে বলে অভিযোগ তামিমের।

ফোনালাপে তামিম আরও জানান, বিপিএলে মুশফিকের ওপর তিনি বড় দায়িত্ব দিয়েছিলেন। আগামী আসরেও দলটা ৭০-৮০ ভাগ একইরকম রাখার পরিকল্পনা ছিল তার। অথচ মুশফিক তার পরিকল্পনা ভেস্তে দিয়েছে। এ সময় তামিমকে ধৈর্য্য ধরার পরামর্শ দেন মিরাজ।

কথপোকথনে তামিম বলেন, ‘মুশফিক আমার জন্য গুরুত্বপূর্ণ একজন ছিল। আমি ওরে দায়িত্ব দিয়েছি পুরো দল চালানোর। খেলা শেষে ওকে বেশি প্রশংসা করেছি। এই মুহূর্তে আমাকে এইরকম মাঝপথে ছেড়ে যাওয়া কি উচিত ছিল’

ফোনালাপে তামিম আরও জানান, তিনি সবচেয়ে দুঃখ পেয়েছেন, মুশফিক তাকে কিছু না জানিয়ে আলাদা দল করার সিদ্ধান্ত নেওয়ায়। চলে যাওয়ার আগে বলে গেলে অন্তত একটু শান্তি হতো। এসময় মিরাজকে উদ্দেশ্য করে তামিম বলেন, অসুবিধা নেই মিরাজ। সময় আমারও আসবে।