মানব জীবনের শুরুটা একটি শুক্রাণু আর একটি ডিম্বাণুর জাইগোট থেকে। এরপর প্রাকৃতিক নিয়মেই মমতাময়ী মায়ের এক দেহে দুই জীবন। গর্ভাশয়ে নিরাপদে বড় হয়ে গঠনে পূর্ণতা পেলে জন্ম হয় একটি মানব শিশুর। পৃথিবীতে একটি নতুন জীবনের যাত্রা শুরু। যাত্রা শুরুর এই জন্ম শব্দটিতে আনন্দ আছে। একসময় এই আনন্দের শেষ হয় শোকে, চিরবিদায়ে, ব্যথায়, জীবনের মৃত্যুতে। জীবনের শেষ মানেই হলো মৃত্যু।

বিদায় নিচ্ছে ২০২০। আসছে নতুন বছর। বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসে কারণে পুরো বছরই থমকে ছিল। অন্ধকারাচ্ছন্ন এই বছরটিতে বিয়ানীবাজারবাসী হারিয়েছে দেশে-বিদেশে বসবাসরত বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, শিল্প-সাহিত্য ও ক্রীড়াঙ্গন এবং শিক্ষক-সাংবাদিকতা জগতের অনেক চেনামুখকে। যাঁরা এ বছরটিতে চিরদিনের জন্য চলে গেছেন তাঁদের তালিকা অনেক দীর্ঘ। চিরপ্রস্থানে যাওয়া এই বিশিষ্টজনেরা নিজ নিজ ক্ষেত্রে চিরস্মরণীয় অবদান রেখে গেছেন। ২০২০ সালে ‘বিয়ানীবাজার নিউজ২৪’ এ প্রকাশিত সকল শোক প্রতিবেদনের সূত্র ধরে সারসংক্ষেপ হিসেবে উল্লেখযোগ কয়েকজনের তথ্য নিম্নে উপস্থাপন করা হয়েছে।

গত ২৯ জানুয়ারি দুপুরে বার্ধ্যক্ষজনিত কারণে ইন্তেকাল করেন বিয়ানীবাজারের কৃতি সন্তান, বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড ‘বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া’র (বেফাক) সহ-সভাপতি, দেশের বৃহৎ এতিহ্যবাহি শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানের ঈদের নামাজের খতিব আল্লামা আজহার আলী আনোয়ার শাহ (রঃ)। তিনি বিয়ানীবাজার উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের ঘুঙ্গাদিয়া গ্রামের বাসিন্দা। তাঁর পিতা শেখ আতহার আলী (রহ)। তিনি আমৃত্যু আল-জামিয়াতুল ইমদাদিয়া কিশোরগঞ্জ-এর মহা পরিচালক এবং আধ্যাত্মিক নগরি সিলেট দরগাহ মসজিদের সাবেক খতিব ছিলেন।

গত ৩ ফেব্রুয়ারি দিবাগত রাত ১টায় সিলেট নগরীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বিয়ানীবাজার উপজেলার কুড়ারবাজার ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি দেউলগ্রাম নিবাসী হাজি আব্দুর রাজ্জাক ।

গত ৪ ফেব্রুয়ারি বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে তার সিলেট নগরীর পূর্ব মিরাবাজার খারপাড়া মিতালী-৫২’র বাসায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বিয়ানীবাজার উপজেলা বিএনপি ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের সাবেক সভাপতি মোল্লাপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মতলিব। রাজনীতিবিদ ও সমাজসেবক মোঃ আব্দুল মতলিব একাধারে দীর্ঘ ৯ বছর অত্যন্ত যোগ্যতা ও দক্ষতার সঙ্গে মোল্লাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া একাধিকবার বাংলাদেশ জাতীয়বাদী দল বিএনপির বিয়ানীবাজার উপজেলা শাখার সভাপতি ও আহবায়ক হিসেবে সফলতার সঙ্গে রাজনীতি করেছেন। পাশাপাশি আলোকিত বিদ্যাপীঠ জলঢুপ উচ্চ বিদ্যালয়, পাতন আব্দুল্লাপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, আব্দুল্লাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও আব্দুল্লাপুর জামে মসজিদের সভাপতি হিসেবে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেন। বিয়ানীবাজারের কলেজ রোড পয়েন্টে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী ঔষধ ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান মেসার্স জহুরা ফার্মেসীর কর্ণধার পরিচ্ছন্ন রাজনীতিক মোঃ আব্দুল মতলিবের বাড়ি উপজেলার মোল্লাপুর ইউনিয়নাধীন আব্দুল্লাপুর গ্রামে। তিনি রাজনীতিবিদ ও শিল্পপতি, কেন্দ্রীয় বিএনপির সাবেক আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক প্রয়াত আলহাজ্ব কমর উদ্দিনের ছোট ভাই।

গত ১৩ ফেব্রুয়ারি রাত ৯টায় সিলেট এমএজি ওসমানি মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন বিয়ানীবাজার উপজেলার চারখাই ইউনিয়নের সাফা গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবুল হোসেন বলু।

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি সকাল ১১টার দিকে সিলেট নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বিয়ানীবাজারের মোল্লাপুর ইউনিয়নের পাতন গ্রামের প্রবীণ মুরব্বী ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মজির উদ্দিন।

গত ২৫ মার্চ সকালে ফ্রান্সের সারসেল এলাকায় নিজ ঘরে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঘুমন্ত অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বিয়ানীবাজার পৌরশহরের কলেজ রোড ও সমবায় মার্কেটের সাবেক ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর রশিদ। তিনি বিয়ানীবাজার উপজেলার লাউতা ইউনিয়নের বাউরভাগ এলাকার বাসিন্দা।

গত ২৯ মার্চ সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে সিলেট নগরের বেসরকারি একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সিলেট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের সাবেক বিশেষ পিপি, বিয়ানীবাজারের বাহাদুরি বাড়ির বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট মো. আব্দুল মালেক (৬৭)। তিনি সিলেটে কমরেড মালেক নামে পরিচিত ছিলেন। এছাড়াও তিনি সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ।

গত ৩১ মার্চ দুপুর ১২টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পূর্ব লন্ডনস্থ নিজ বাসায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বিয়ানীবাজার উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের চন্দ্রগ্রামের বাসিন্দা, বিয়ানীবাজার কামিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতাকালীন শিক্ষক যুক্তরাজ্য প্রবাসী হাজী শফিকুর রহমান। তিনি বাংলাদেশ সেন্টার লন্ডন’র আজীবন সদস্য আবু আহমদ সরওয়ারের পিতা।

গত ২ এপ্রিল করোনাভাইরাসের আক্রান্ত হয়ে লন্ডনে একদিনে বিয়ানীবাজারের দুই বৃদ্ধ মৃত্যুবরণ করেন। ২ এপ্রিল ভোরে দ্যা রয়েল লন্ডন হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আপ্তাব উদ্দিন (৭৫)। তিনি উপজেলার মোল্লাপুর ইউনিয়নের পাতন গোডাউন বাজারের রাইসমিলওয়ালা বাড়ির বাসিন্দা। একই দিনে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে বিয়ানীবাজার উপজেলার মাথিউরা ইউনিয়নের নালবহর গ্রামের তফজ্জুল আলী (চান্দ আলী) নামের সত্তোর্ধ্ব বৃদ্ধ মৃত্যুবরণ করেন।

গত ৫ এপ্রিল ভোর সাড়ে ৪টার দিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরের আলমাস্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন আমেরিকায় বসবাসরত বাংলাদেশী কমিউনিটির প্রিয় মুখ, মানবতার ফেরিওয়ালা নিউইয়র্কের ‘কামাল ভাই’ নামে খ্যাত কামাল আহমদ। তাঁর বাড়ি বিয়ানীবাজার উপজেলার লাউতা ইউনিয়নের বাউরভাগ গ্রামে। তিনি মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশীদের সর্ববৃহৎ সামাজিক সংগঠন বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকে এবি মিডিয়া গ্রুপের পরিচালক হিসেবে মিডিয়া অঙ্গনেও যুক্ত ছিলেন কামাল আহমদ। তিনি বাংলাদেশ বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতির সাবেক সভাপতি এবং বর্তমান উপদেষ্টা পরিষদের অন্যতম সদস্য ছিলেন। এছাড়াও তিনি জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সভাপতি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। তার প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগিতায় এবং অর্থায়নে অসংখ্য মসজিদ মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে দেশ ও প্রবাসে। মানবতার সেবায় নিজেকে যুক্ত এ মানুষটি দেশেও রাজনীতিসহ বিভিন্ন সামাজিক কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

গত ৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় ভারতের গুয়াহাটি অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নারীনেত্রী ও বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা রাখী দাশ পুরকায়স্থ (৬৮)। তিনি বিয়ানীবাজারের লাউতার প্রয়াত আইনজীবী বিরজামোহন পুরকায়স্থের মেয়ে। চাকুরিজীবনে তিনি বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশনের যুগ্ম সচিব ছিলেন। ছাত্রজীবনে ঢাকার ইডেন কলেজের ছাত্র সংসদের পরপর তিনবার নির্বাচিত সহসভাপতি (ভিপি) ছিলেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শামসুন্নাহার হলের সহসভাপতি (ভিপি) ছিলেন। তিনি ছাত্র ইউনিয়নের রাজনীতির সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন।

গত ১০ এপ্রিল সকাল ১১টায় বার্ধক্যজনিত কারণে নিজ বাড়িতেই মৃত্যুবরণ করেন বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক উপদেষ্টা হাজী নুর উদ্দিন। তিনি ইউনিয়নের জালালনগর এলাকার বাসিন্দা। এছাড়াও তিনি চারখাই ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য।

গত ১৮ এপ্রিল রাতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যুক্তরাজ্যের লন্ডন শহরের কুইন্স হাসপাতালে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন বাংলাদেশ সেন্টারের আজীবন সদস্য ও বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতির অন্যতম উপদেষ্টা, প্রবাসী কমিউনিটি নেতা আলহাজ্ব রউফুল ইসলাম। তাঁর বাড়ি বিয়ানীবাজার পৌরশহরের শ্রীধরা গ্রামে। প্রয়াত রউফুল ইসলাম বিয়ানীবাজার ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট ইউকে’র সাবেক সভাপতি। এছাড়াও তিনি বিয়ানীবাজার ক্যান্সার হাসপাতালের ভূমিদাতা ও হাসপাতালের পরিচালনা পর্ষদের ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন।

গত ২৩ এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন ব্য়িনীবাজার কামিল মাদরাসার প্রধান মুহাদ্দিস, আলেমে দ্বীন শায়খুল হাদিস হযরত মাওলানা শাফিউর রহমান মুহাদ্দিস (ফাজিলে দেওবন্দ)। তিনি গোলাপগঞ্জ উপজেলার ভাদেশ্বর ইউনিয়নের পশ্চিমভাগ গ্রামের বাসিন্দা। নিজের গ্রামে নিজ হাতে গড়া আল্ হেরা হাফিজিয়া মাদ্রাসাও পরিচালনা করে আসছিলেন তিনি। তিনি একটানা বেশ কয়েকবছর বিয়ানীবাজার উপজেলার মাথিউরা ইউনিয়নের নালবহর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব ছিলেন।

গত ১০ মে আমেরিকার নিউইয়র্কে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথমে ছেলে ফখরুজ্জামান এবং পরদিন ১১ মে মারা গেলেন বাবা মুহিবুর রহমান। তারা দুজনেই বিয়ানীবাজারের বাসিন্দা, বাড়ি তিলপারা ইউনিয়নের মাটিজুরা গ্রামে। বাবা–ছেলে দুজনকেই একই দিনে নিউজার্সির মুসলিম গোরস্তানে দাফন করা হয়।

গত ১৩ মে ভোররাতে নিজ বাড়িতে পরলোক গমন বিয়ানীবাজার উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের কোনাশালেশ্বর গ্রামের বাসিন্দা এবং বালিঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রবীণ শিক্ষক মুকুল চন্দ্র পাল। তিনি বিয়ানীবাজার পৌরসভার কর নির্ধারক রোটারিয়ান দিবাকর চন্দ্র পালের পিতা।

গত ৫ জুন ভোরে নিজবাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন বিয়ানীবাজার পৌর জাতীয় পার্টির সভাপতি মো. আব্দুর রাজ্জাক। তাঁর বাড়ি পৌরশহরের খাসা গ্রামে।

গত ১৩ জুন রাত সাড়ে ১২টায় বার্ধক্যজনিত নানা জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে নিজ বাড়িতে মারা যান বিয়ানীবাজারের পিএইচজি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন সিনিয়র শিক্ষক সফর আলী। তাঁর বাড়ি উপজেলা লাউতা ইউনিয়নের জলঢুপের আষ্টসাঙ্গন গ্রামে।

গত ১৫ জুন দুপুর ১২.৩০ মিনিটের সময় ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন বিয়ানীবাজার পৌরশহরের সুপাতলা গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী ইদ্রিস আলী।

গত ২৪ জুন রাত ১২টার দিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সিলেটের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরন বিয়ানীবাজার উপজেলার মাথিউরা খলাগ্রামের বাসিন্দা হাজী বুরহান উদ্দিন (৭৩)। পরদিন ২৫ জুন মধ্যরাতে নিজ বাড়িতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন হাজী বুরহান উদ্দিনের সহধর্মিনী রাবেয়া বেগম (৬০)। হাজী বুরহান উদ্দিন দম্পতি বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের ১৯৯৭ ছাত্র সংসদের বার্ষিকী সম্পাদক, যুক্তরাজ্যস্থ মাথিউরা ইউনিয়ন উন্নয়ন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও এবি মিডিয়া গ্রুপের পরিচালক আনোয়ার হোসেন, বিয়ানীবাজার উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক জাকির হোসেনের পিতা-মাতা এবং বিয়ানীবাজার নিউজ২৪ সম্পাদক আহমদের ফয়সালের চাচা-চাচী।

গত ২০ জুলাই সকাল সাড়ে ৯টার দিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সিলেটের একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন বিয়ানীবাজার উপজেলা জাতীয়তাবাদী যুবদল সভাপতি হাজী জসিম উদ্দীন (৫৫)। ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিনের বাড়ি মাথিউরা ইউনিয়নের পশ্চিমপার এলাকায়।

গত ২৪ জুলাই দুপুরে বিয়ানীবাজার উপজেলার মাথিউরা দ্বি-পাক্ষিক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন, শিক্ষক হাজারো মানুষ গড়ার কারিগর, জ্ঞানের বাতিঘর বীর মুক্তিযোদ্ধা তিমির বরণ পাল চৌধুরী (৭৮)। তিনি বিয়ানীবাজার সাংস্কৃতিক কমান্ডের নাট্যকর্মী ও খাসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তন্ময় পাল চৌধুরী (তিলক) এর বাবা।

গত ২৬ জুলাই ভোরবেলা রাজধানী ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বিয়ানীবাজার উপজেলার সাবেক জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম। তাঁর বাড়িপৌরশহরের ফতেহপুর-দাসগ্রাম এলাকায়। তিনি যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী কমিউনিটি নেতা আবদুর রউফ তুলনের দুলাভাই ও বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক নেতা যুক্তরাজ্য প্রবাসী আনোয়ারুল ইসলাম জিকু ও লগান জামিলের পিতা।

গত ৭ আগসট করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বিয়ানীবাজার পৌরসভার ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র-৩ রুশনা বেগম। তিনি দীর্ঘদিন ধরে শ্বাসকষ্টজনিত রোগে ভুগছিলেন। তার বাড়ি পৌর এলাকার সুপাতলায়।

গত ৯ আগস্ট সকাল ৭টায় সিলেটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বিয়ানীবাজারের শেওলা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান, বিয়ানীবাজার উপজেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী আব্দুল জব্বার।

গত ২১ আগস্ট দুপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের ‘বন্ধু-৮৭’ ব্যাচের অন্যতম সদস্য, উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের কোনাশালেশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অসিত রঞ্জন পাল।

গত ৭ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টায় মারা যান বিয়ানীবাজার পৌরসভার নিদনপুর জুলাটিল্লা গ্রামের যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. তৈয়ব হোসেন।

গত ১৮ অক্টোবর ভোরে নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন বিয়ানীবাজার উপজেলার মুল্লাপুর ইউনিয়নের আব্দুল্লাপুর-বারইগ্রামের বাসিন্দা, সিলেটের সত্তর দশকের চিত্রশিল্পী হাবিবুর রহমান হাবিব। তিনি সকলের কাছে ‘হাবিব আর্ট’ নামে পরিচিত ছিলেন। স্বাধীনতা পরবর্তী সময় থেকে সিলেট বিভাগে সর্বত্র হাবিব আর্টের সৃজনশীল কর্ম ছড়িয়ে ছিল।

গত ২০ অক্টোবর বিকাল ৫টায় বার্ধক্যজনিত কারণে নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন বিয়ানীবাজার পৌরসভার নয়াগ্রাম এলাকার বাসিন্দা ও  পঞ্চখন্ড হরগোবিন্দ (পিএইচজি) সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন সহকারী প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমান (৯০)। তিনি শিক্ষক খলিল চৌধুরী আদর্শ বিদ্যা নিকেতনের সহকারি শিক্ষক এবং প্রেরণা যুবচক্রের সভাপতি ফয়জুল সিমালের পিতা।

গত ২৪ অক্টোবর দুপুরে নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন বিয়ানীবাজার উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধা উস্তার আলী। মুক্তিযুদ্ধের লড়াকু সৈনিক উস্তার আলীর বাড়ি মুড়িয়া ইউনিয়নের ঠেকইকোনা গ্রামে।

গত ১ নভেম্বর রাত ১১টার দিকে যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান শহরের নিজ বাসায় মৃত্যুবরণ করে মুক্তিযুদ্ধের সময় মুজিবনগর থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক জন্মভূমি পত্রিকার সম্পাদক, বিয়ানীবাজারের সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তফা আল্লামা। তাঁর বাড়ি উপজেলার কুড়ারবাজার ইউনিয়নের দেউলগ্রামে। তিনি ফটোগ্রাফার হিসেবে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সেনাপতি ওসমানীর সঙ্গেও কাজ করেছেন। এরশাদ সরকারের অধীনে ১৯৮৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-৬ (বিয়ানীবাজার-গোলাপগঞ্জ) আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন তিনি।

গত ৭ ডিসেম্বর বিকাল ৩টায় যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন বিয়ানীবাজারের মাথিউরা ইউনিয়নের খলাগ্রামের বাসিন্দা ও ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য মো. এনামুল হক। গত ৭ ডিসেম্বর সকালে সিলেটের আল হারামাইন হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন বিয়ানীবাজার উপজেলার তিলপাড়া ইউনিয়নের দাসউরা গ্রামের সন্তান, সিলেট নগরীর ব্যবসায়ী, দাসউরা উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আব্দুল মুক্তাদির।

গত ৯ ডিসেম্বর সকালে বার্ধক্যজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেন বিয়ানীবাজার উপজেলার মাথিউরা ইউনিয়নের সুতারকান্দি গ্রামের বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল জলিল (৭৫)।

গত ১০ ডিসেম্বর ভোরে ইন্তেকাল করেন বিয়ানীবাজার পৌরসভার শ্রীধরা এলাকার বাসিন্দা, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড বিয়ানীবাজার পৌর কমান্ডের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সইদ আলী।

গত ১১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় বার্ধ্যকজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক হাজী জুনাব আলী সাহেব (৯৫)। হাজী জুনাব আলী ডিলার জুনাই মিয়া নামে পরিচিত ছিলেন। তিনি বিয়ানীবাজার কলেজ, গার্লস হাইস্কুল, সিনিয়র মাদ্রাসা, জামে মসজিদ, বিয়ানীবাজার ইউনিয়ন পরিষদের (বর্তমান পৌরসভার) কার্যালয়ের স্হান নির্ধারণে, কবরস্থান স্হাপন, পিএইচজি হাইস্কুল পরিচালনায় যথেষ্ট সহযোগিতা করেন। বিয়ানীবাজার কলেজের ম্যানেজিং কমিটির কোষাধ্যক্ষ হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন তিনি ।

গত ১৫ ডিসেম্বর রাত সোয়া ৮টায় একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বাংলাদেশ আনজুমানে আল ইসলাহ বিয়ানীবাজার উপজেলা শাখার সভাপতি ও  মাথিউরা দারুল উলুম হাফিজিয়া মাদরাসা প্রিন্সিপাল হাফিজ মোঃ আব্দুল মতিন (৬৫)।

গত ১৬ ডিসেম্বর যুক্তরাজ্যের লন্ডন নিউহ্যাম  হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বিয়ানীবাজার ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট ইউকে’র ট্রাস্টি, উপজেলার মাথিউরা ইউনিয়নের পুরুষপাল গ্রামের আলহাজ্ব হারুনুর রশিদ (সোনা)।

গত ১৮ ডিসেম্বর রাত ১২টায় বার্ধ্যকজনিত কারণে নিজ বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন বিয়ানীবাজার উপজেলার চারখাই ইউনিয়নের মান্দারগ্রামের গ্রামের বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন।

এদিকে, বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাস সংক্রমণের ১০ মাস অতিক্রম করছে বাংলাদেশ। ৮ই মার্চ শনাক্ত হয় প্রথম রোগী। ধীরে ধীরে জেলা-উপজেলাগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে সংক্রমণ। এই ভাইরাসে বিয়ানীবাজারবাসী হারিয়েছে ২৪জন স্বজনকে। এছাড়াও বিগত বছরে বিয়ানীবাজারবাসী হারিয়েছেন নাম না জানা আরও অনেক স্বজনকে। রোগাক্রান্ত হয়ে মৃত্যু কিংবা স্বাভাবিক মৃত্যু- সবকিছু ছাড়িয়ে গেছে ভয়ঙ্কর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর ঘটনায়। বিয়ানীবাজার উপজেলার প্রথম অনলাইন পত্রিকা ‘বিয়ানীবাজার নিউজ২৪ ডটকম’র পক্ষ থেকে তাদের জন্য রইল গভীর শোক ও প্রার্থনা।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

ফিরে দেখা ২০২০- এ বছরের যত আলোচিত ঘটনা