সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার ঘোষিত আরব আমিরাতে থাকা বিনিয়োগকারীদের, উদ্যোক্তাদের, বিশেষ প্রতিভা, গবেষক/বিজ্ঞানীরা এবং বিশিষ্ট শিক্ষার্থীদের স্থায়ী বাসস্থান প্রকল্পের আওতায় প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে গোল্ডকার্ড পেলেন এনআরবি ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও আল হারামাইন পারফিউম গ্রুপ অফ কোম্পানির চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক সিআইপি মাহতাবুর রহমান নাসির।

রোববার দুবাইয়ের জিডিআরএফএ সদর দফতরে মোহাম্মদ মাহতাবুর রহমান এবং তাঁর পরিবারের সকল সদস্যকে গোল্ড কার্ড প্রদান করা হয়। সংশিল্ষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা আলী মোহাম্মদ আল হাম্মাদি ও ল্যাফটেন্যান্ট আবুবকর আহমেদ আল আলী তাঁর হাতে এ সম্মানীয় আবাসিক গোল্ডকার্ড তুলে দেন।

মোহাম্মদ মাহতাবুর রহমান দেশ বিদেশে আল হারামাইন গ্রুপের জন্য বিখ্যাত। তিনি একাধিকবার সিআইপি মর্যাদা পেয়েছেন বাংলাদেশ সরকারের কাছ থেকে। ১৯৭০ সালে আল হারামাইন পারফিউম যাত্রা করে পবিত্র শহর মক্কা থেকে। সেই থেকে বিশ্বের নানা দেশে এর শাখা প্রতিষ্ঠান গড়ে তিনি সুনামের সাথে ব্যবসা করে যাচ্ছেন।

গত মাসে আরব আমিরাতের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী এবং দুবাইয়ের শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন রাশেদ আল মকতুম ঘোষিত ‘গোল্ড কার্ড’ পাওয়া প্রথম বাংলাদেশি প্রবাসী তিনি। এই গোল্ড কার্ড আরব আমিরাতে থাকা বিনিয়োগকারীদের, উদ্যোক্তাদের, বিশেষ প্রতিভা, গবেষক/বিজ্ঞানীরা এবং বিশিষ্ট শিক্ষার্থীদের স্থায়ী বাসস্থান প্রকল্পের একটি অংশ।

এই নতুন উদ্যোগটির পরিকল্পনার অভূতপূর্ব সুবিধাগুলি থেকে উপকৃত হওয়ার জন্য প্রথম ৬৮০০ যোগ্যতাসম্পন্ন প্রবাসীদের তালিকা তৈরী করা হয়েছে।

গোল্ড কার্ড পাওয়ার পরে তিনি বলেন, “আমি এই গোল্ড কার্ডটি পাওয়া প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে গর্বিত এবং সম্মানিত বোধ করছি এবং আমি আন্তরিকভাবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের স্বপ্নদর্শী নেতাদের ধন্যবাদ জানাই। এখন আমি, আগের চেয়েও বেশি, সংযুক্ত আরব আমিরাতের সাফল্যের জন্য আমার যথাসাধ্য অবদান রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এবং এই মহান জাতির মহান নেতাদের স্বপ্ন ও উচ্চাকাঙ্ক্ষাকে সমর্থন করতে থাকব। “

এদিকে তাঁর এ গোল্ডকার্ড প্রাপ্তিতে বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল দুবাই, সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদ ও এবিমিডিয়া গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) রিজু মোহাম্মদ, এমডি, যুক্তরাষ্ট্রের মূলধারার রাজনীতিক, কমিউনিটি নেতা ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, সিওও আহমেদ ফয়সাল, সিএফও এম সিন উদ্দিন, পরিচালক যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের বৃহৎ সংগঠন বাংলাদেশ সোসাইটির দুই বারের নির্বাচিত সভাপতি কামাল আহমেদ, বিশিষ্ট শিল্পপতি ও শিক্ষানুরাগী সমাজসেবক মোসলেহ উদ্দিন খান, সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের নির্বাহী সদস্য মাহি উদ্দিন আহমেদ সেলিম, যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা আজিমুর রহমান বুরহান, যুক্তরাষ্ট্রে উপজেলা ভিত্তিক সর্ববৃহৎ সংগঠন বিয়ানীবাজার সমিতির সভাপতি মোস্তফা কামাল, যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার বৃহৎ আমদানিকারক ফাতেমা গ্রুপের চেয়ারম্যান ও বিয়ানীবাজারে অন্যতম দাতব্য প্রতিষ্ঠান হাজি তাহের আলী ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব শামসুল ইসলাম, শিক্ষানুরাগী ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ আব্দুল খালেক লালু, যুক্তরাষ্ট্রে উপজেলা ভিত্তিক সর্ববৃহৎ সংগঠন বিয়ানীবাজার সমিতির সাবেক সভাপতি মাসুদুল হক সানু, প্রকৌশলী ও ক্রীড়ামোদী যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মোঃ রহমান সায়েম, যুক্তরাষ্ট্রে মূল ধারার রাজনীতিক ও নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যের নির্বাচিত কাউন্সিলম্যান শাহিন খালেক, যুক্তরাজ্যস্থ মাথিউরা উন্নয়ন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আনোয়ার হোসেন, যুক্তরাজ্যস্থ সুপাতলা ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট ইউকে’র যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল বাছিত আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, মাহতাবুর রহমান নাসিরের বাড়ি সিলেট জেলার বিয়ানীবাজার উপজেলার চারখাই এলাকায়। তিনি সম্প্রতি সিআইপি (এনআরবি) এসোসিয়েশন এর সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন।