ফ্রান্সে সরকারী পৃষ্ঠপোষকতায় মহানবী (স.) এর ব্যঙ্গ চিত্র প্রকাশ ও প্রদর্শনের প্রতিবাদে আজ শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) বাদ জুম্মা বিয়ানীবাজার উপজেলার চারখাই ছিল বিক্ষোভে উত্তাল।

জুম্মার নামাজের পরপরই ইউনিয়নের বিভিন্ন পাড়া থেকে একে একে বড় বড় মিছিল আসতে থাকে দিঘিরপার এলাকায়। একসময় দিঘিরপার এলাকা পরিণত হয় লোকে লোকারণ্য। পরে স্থানীয় এলাকার ইমাম ও মুয়াজ্জিন সমাজের উদ্যোগে এক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মাওলানা লুৎফুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং মনজুর আহমদ শিকদার বাবুর পরিচালনায় বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বিশ্বের কোটি কোটি মুসলমানদের প্রাণের স্পন্দন বিশ্ব নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) কে অপমান করার জন্য ফ্রান্স সরকারকে ক্ষমা চাওয়ার পাশপাশি সেখানে ইসলাম অবমাননার সকল কর্মকান্ড চিরতরে বন্ধ করার আহবান জানান।

বক্তারা বলেন, ফ্রান্স সরকারের অবশ্যই জেনে থাকার কথা যে বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় অনেক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান ইতোপূর্বে ইসলাম ও বিশ্ব নবীর অবমাননার অপরাধে দেশান্তরীত হয়েছেন এবং বিশ্ব সমাজ থেকে উপেক্ষিত ও অবাঞ্ছিত হয়েছেন। সুতরাং আমরা ফ্রান্স সরকারকে জানিয়ে দিতে চাই যে, তার এই ঘৃণ্য কাজের জন্য অবশ্যই ক্ষমা চাইতে হবে এবং ইসলাম অবমাননার সকল কর্মকান্ড চিরতরে বন্ধ করতে হবে। নাহলে বিশ্বের মুসলমানগন ফ্রান্সকে অর্থনৈতিকভাবে পঙ্গু করার জন্য ফ্রান্সের সকল পণ্য বর্জন ও সার্ভিস বয়কট করবে। ইসলাম ও বিশ্ব নবীর অবমাননার কারণে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে মুসলমানগন জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে সর্বাত্মক আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাবে।